ক্রিকেটার নাসির ও তামিমার বিয়ে বৈধ উপায়ে হয়নি!

প্রকাশিত: ১১:০৮ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ১, ২০২১

ক্রিকেটার নাসির ও তামিমার বিয়ে বৈধ উপায়ে হয়নি!

ডেস্ক রিপোর্ট: ক্রিকেটার নাসির হোসেইন ও সৌদিয়া এয়ারলাইন্সের কেবিন ক্রু তামিমা সুলতানা তাম্মীর বিয়ে বৈধ উপায়ে হয়নি। তামিমা ও রাকিব হাসানের বিবাহবিচ্ছেদ সংক্রান্ত নথি জালিয়াতির মাধ্যমে তৈরি করা হয়েছে। আগের স্বামী রাকিব হাসানকে ডিভোর্স না দিয়েই তামিমা নাসির হোসেনকে বিয়ে করেন। তালাক যথাযথভাবে হয়নি জেনেও নাসির বিয়ে করেছিলেন তামিমাকে। গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালতে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছেন। ওই প্রতিবেদনে এমন তথ্য উঠে এসেছে।
এদিকে দুজনের বিয়ে অবৈধ বলে আদালতে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) প্রতিবেদন জমা দেয়ার পর নাসির হোসেইন ও তামিমা সুলতানা তাম্মীসহ তিনজনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আবেদন করেন রাকিবের আইনজীবী। ঢাকা মহানগর হাকিম মোহাম্মদ জসীমের আদালতে রাকিবের পক্ষে এ আবেদন করেন তার আইনজীবী ইশরাত হাসান। পরে আদালত তার আবেদন আমলে নিয়ে আগামী ৩১শে অক্টোবর আদালতে হাজির হওয়ার জন্য সমন জারি করেন।
পিবিআই-এর তদন্ত প্রতিবেদনে বলা হয়, যথাযথভাবে বিচ্ছেদ না করেই নতুন বিয়ে করার অভিযোগ আনা হয়েছে তামিমার বিরুদ্ধে।

আর নাসিরের বিরুদ্ধে অন্যের স্ত্রীকে প্রলুব্ধ করে নিয়ে যাওয়া, ব্যাভিচার এবং তামিমার আগের স্বামীর মানহানি ঘটানোর অভিযোগ আনা হয়। সব জেনেও বিয়েতে সহায়তা করায় তামিমার মাকেও অভিযোগপত্রে আসামি করা হয়েছে।

তদন্ত প্রতিবেদনে বলা হয়, আইনগতভাবে রাকিব তালাকের কোনো নোটিশ পাননি। তামিমা উল্টো ‘জালিয়াতি’ করে তালাকের নোটিশ তৈরি করে তা বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে দেখিয়েছেন। যথাযথ প্রক্রিয়ায় তালাক না দেয়ায় তামিমা এখনো আইনত রাকিবের স্ত্রী। ধর্মীয় বিধিবিধান ও আইন অনুযায়ী এক স্বামীকে তালাক না দিয়ে অন্য কাউকে বিয়ে করা অবৈধ ও শাস্তিযোগ্য অপরাধ। ক্রিকেটার নাসির হোসেইন ও তামিমা তাম্মীর বিয়ে অবৈধ। তারা দণ্ডবিধির ৪৬৮/৪৭১/৪৯৪/৪৯৭/৫০০/৩৪ ধারায় অপরাধ করেছেন বলে তদন্তে প্রাথমিকভাবে প্রমাণিত হয়েছে।
তামিমাকে গ্রহণ করতে রাজি রাকিব: ওদিকে রাকিব হাসান বলেন, তদন্তে প্রমাণ হয়েছে, নাসির-তামিমা যে বিয়ে করেছেন সেটি অবৈধ। তালাক হতে গেলে যে প্রক্রিয়া মানা দরকার তার কোনোটিই তারা মানেননি। ফলে তামিমা এখনো আমার স্ত্রী। তদন্ত প্রতিবেদনের প্রতিক্রিয়ায় তিনি জানান, তামিমা এখনো আইনত আমার স্ত্রী। সে যদি স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্ক কন্টিনিউ করে তাহলে আমিও করবো। তামিমা ফিরে আসতে চাইলে তাকে গ্রহণ করবেন কিনা- সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে রাকিব হাসান বলেন, অবশ্যই করবো। সে যদি আসতে চায় আসতে পারে।
গত ১৪ই ফেব্রুয়ারি ক্রিকেটার নাসির হোসেইন ও তামিমা সুলতানার বিয়ে হয়। এরপর নতুন করে বিতর্ক ওঠে এই ক্রিকেটারকে ঘিরে। তামিমা সুলতানা তার আগের স্বামীকে তালাক না দিয়ে নাসিরকে বিয়ে করেছেন। রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানায় এমন অভিযোগ তুলে সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন রাকিব হাসান। জিডিতে তামিমার সঙ্গে তার দীর্ঘ সম্পর্কের কথা উল্লেখ করেন রাকিব।
জিডিতে তিনি দাবি করেন, তামিমার সঙ্গে তার ১১ বছরের সংসার। তাদের আট বছরের একটি মেয়েও আছে। কিন্তু সব ফেলে নাসিরকে বিয়ে করায় থানায় অভিযোগ করেন তিনি। ১৪ই ফেব্রুয়ারি বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে রাজধানীর উত্তরার একটি রেস্তরাঁয় নাসির ও তামিমার বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়।

এই সংবাদটি 59 বার পঠিত হয়েছে

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com