গ্রেপ্তারের পর পুলিশ এক নারীর সঙ্গে আমার ছবি তুলেছিল: আদালতে ‘শিশুবক্তা’

প্রকাশিত: ১:৫৪ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৭, ২০২২

গ্রেপ্তারের পর পুলিশ এক নারীর সঙ্গে আমার ছবি তুলেছিল: আদালতে ‘শিশুবক্তা’

রাষ্ট্রবিরোধী, উস্কানিমূলক মন্তব্য এবং বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অভিযোগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় গ্রেপ্তার ‘শিশুবক্তা’ রফিকুল ইসলাম মাদানীর বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছেন আদালত।

আজ বুধবার ঢাকা সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ আশ সামস জগলুল হোসেন অভিযোগপত্র পড়ে শোনান। তবে রফিকুল আদালতে দোষ স্বীকার করেননি এবং ন্যায়বিচার দাবি করেছেন।

ট্রাইব্যুনাল মামলার বিচার শুরুর জন্য আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি তারিখ নির্ধারণ করেছেন।

আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর নজরুল ইসলাম শামীম দ্য ডেইলি স্টারকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, আজকের শুনানিতে ‘শিশুবক্তা’ রফিকুল আদালতে দাবি করেছেন যে তাকে গ্রেপ্তারের পর পুলিশ থানায় এক নারীর সঙ্গে বেশ কয়েকটি ছবি তুলেছিল।

তাছাড়া, তার বক্তৃতার ভুল ব্যাখ্যা করা হয়েছে এবং তার নামে মিথ্যা বক্তব্য প্রচার করা হয়েছে বলে উল্লেখ করেন রফিকুল ইসলাম মাদানী।

গত বছরের ২৫ মার্চ বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সফরের প্রতিবাদে বিক্ষোভ চলাকালে ঢাকার মতিঝিল এলাকা থেকে মাদানীকে গ্রেপ্তার করা হয়। কিন্তু কিছুক্ষণের মধ্যেই তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

পরে একই বছরের ৭ এপ্রিল নেত্রকোনার পূর্বধলা এলাকা থেকে র‍্যাব তাকে গ্রেপ্তার করে। তার বিরুদ্ধে গাজীপুরের গাছা থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করা হয়।

পুলিশ জানায়, তিনি ইউটিউবের মাধ্যমে ঘৃণ্য বার্তা প্রচার করে আসছিলেন। তার বিরুদ্ধে গাজীপুর ও তেজগাঁও থানায় আরও ৩টি মামলা আছে।

— দ্য ডেইলি স্টার

এই সংবাদটি 230 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

[latest_post][single_page_category_post]

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com