স্বীকৃতি বিষয়ে আল্লামা শফীর নেতেত্বে ৬ শিক্ষাবোর্ড ঐক্যবদ্ধ

প্রকাশিত: ৪:৫০ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১০, ২০১৬

সিলেট রিপোর্ট: কওমী মাদরাসার শিক্ষাবোর্ড বেফাকের সভাপতি রঈসুল উলামা আল্লামা শাহ আহমদ শফী’র আহবানে  আজ  শনিবার(১০ ডিসেম্বর) শনিবার চট্রগ্রামের দারুল উমুল মঈনুল ইসলাম হাটহাজারী মাদরাসায় বিভিন্ন বোর্ডের প্রতিনিধিদের এক গুরুত্বপুর্ন বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। আল্লামা শাহ আহমদ শফী’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই বৈঠকে বেশ কয়েকটি গুরুত্বপুর্ন সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। আজকের বৈঠককে কেন্দ্র সবচাইতে বেশী আলোচিত বিষয় ছিলো মাওলানা ফরিদ উদ্দীন মাসউদ এর যোগদান। তিনি আল্লামা শফীর নেতৃত্বাধীন বেফাকের প্রতিনিধি নাকি সদ্যঘোষিত ‘জাতীয় দ্বীনিবোর্ড’ এর প্রতিনিধি প্রমন প্রশ্নের জবাব জানতে চাইলে সঠিক উত্তর পাওয়া যায়নি কারো কাছে। তবে বৈঠকের সিদ্ধান্তের আলোকে বলা যায় যে মাওলানা ফরিদ উদ্দীন মাসউদ সদ্য ঘোষিত জাতীয় বোর্ডের চেয়ারম্যান হিসেবেই তিনি আজকের বৈঠকে যোগদান করেছেন।
বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, বেফাকের সহসভাপতি আল্লামা নূর হুসাইন কাসেমী, মাওলানা আশরাফ আলী,
মাওলানা মুসলেহ উদ্দীন রাজু, জামিয়া ইসলামিয়া পটিয়ার মহা পরিচালক আল্লামা আব্দুল হালিম বুখারী, জামিয়া দারুল মা’আরিফের পরিচালক আল্লামা সুলতান যওক নদভী,ইকরার মহাপরিচালক মাওলানা ফরিদ উদ্দিন মাসউদ, মাওলানা আনোয়ার শাহ কিশোরগঞ্জ, মাওলানা জুনাইদ বাবুনগরী, মুফতী রুহুল আমীন গহরডাঙ্গা, বেফাকের মহাপরিচালক মাওলানা জুবায়ের আহমদ, বেফাকের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মাওলানা আব্দুল কুদ্দুস, মাওলানা আরসাদ রহমানী বসুন্ধরা,সিলেট আজাদ দ্বীনী এদারা বোর্ডের মাওলানা আবদুল বাছির, মাওলানা এনামুল হক, মাওলানা ইউসুফ খাদিমানী প্রমুখ।
জানাগেছে, ৪ টি বোর্ডের সাথে আজ আরো ২টি বোর্ড যুক্ত হয়ে ৬ টি শিক্ষাবের্ডের সমন্বয়েই নতুন করে সম্মিলিত বোর্ডের যাত্রা শুরু হলো। এই ৬ বোর্ডের সমন্বয়েই স্বীকৃতির বিষয়টি নিয়ে সরকারের সাথে আলোচনা হবে।  হাটহাজারীতে হৃদ্যতাপূর্ণ পরিবেশে শীর্ষ আলেমদের বৈঠক সম্পন্ন ‘দাওরায়ে হাদীসের সনদের মান বাস্তবায়ন কমিটি’ গঠন করা হয়।
বাংলাদেশ কওমি মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের (বেফাক) যে সাত জন কমিটিতে স্থান পেয়েছেন তারা হলেন, আল্লামা আশরাফ আলী, আল্লামা নুর হোসাইন কাসেমী, মাওলানা আবদুল কুদ্দুস,  মুফতি ওয়াক্কাস, মাওলানা আযহার আলী আনওয়ার শাহ, মাওলানা সাজিদুল ইসলাম, মাওলানা মাহফুজুল হক।
বাকী পাঁচ বোর্ডের যে ১৫জন স্থান পেয়েছে কমিটিতে তারা হলেন, জাতীয় দ্বীনিবোর্ডের মাওলানা ফরীদ উদ্দীন মাসউদ, মুফতি মুহাম্মাদ আলী, মাওলানা এমদাদুল্লাহ কাসেমী। সিলেট এদারা বোর্ডের মাওলানা শায়খ আবদুল বাছির, মাওলানা এনামুল হক, মাওলানা ইউনুস খাদেমানী। গহরডাঙ্গা বেফাকের মুফতি রুহুল আমীন, মাওলানা শামসুল হক, মাওলানা আকরাম আলী। তানজিম বোর্ডের মাওলানা আরশাদ রহমানী, মাওলানা আবদুল হক হক্কানী, মাওলানা মাহমুদুল আলম। পটিয়ার ইত্তেহাদ বোর্ডের আল্লামা সুলতান যউক নদবী, আল্লামা আবদুল হালিম বুখারী, মাওলানা আবু তাহের রহমানী। সূত্র জানিয়েছে, বেফাকের ৭জন ও বাকী পাঁচ বোর্ডের ১৫জন সহ মোট ২২ সদস্যের কমিটি গঠিত হয়েছে।

এই সংবাদটি 236 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

[latest_post][single_page_category_post]

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com