জামালগঞ্জে বিক্ষোভ সমাবেশ ভারতকে বিশ্ববাসীর সামনে ক্ষমা চাইতে হবে

প্রকাশিত: ৮:০৪ অপরাহ্ণ, জুন ১০, ২০২২

জামালগঞ্জে বিক্ষোভ সমাবেশ ভারতকে বিশ্ববাসীর সামনে ক্ষমা চাইতে হবে


তৌহিদ চৌধুরী প্রদীপ, জামালগঞ্জ (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি

বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ও উম্মুল মুমিনীন হযরত আয়েশা সিদ্দীকা (রা.)-কে নিয়ে ভরতে কটূক্তির প্রতিবাদে জামালগঞ্জে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলার ঐতিহাসিক সাচনাবাজারে বাদ জুম্মায় বিশ্বনবী মুহাম্মদ সাঃ কে নিয়ে ভারতের বিজেপি মুখপাত্র ‘নুপুর শর্মা’ ও দিল্লির গণমাধ্যম শাখার প্রধান ‘নবীন কুমার জিন্দাল’ এর কটুক্তির প্রতিবাদে ও বাংলাদেশ সরকারের রাষ্ট্রীয়ভাবে নিন্দা জানানোর দাবিতে বাজারের প্রধান সড়কে শান্তিপুর্ন বিক্ষোভ মিছিল হয়েছে।
হাফেজ মাওঃ আব্দুল মুক্তাদির ও মাওঃ মাহমুদের সার্বিক প্রচেষ্টায়
শাইখ মাওঃ আব্দুল কাদির’র সভাপতিত্বে মাওঃ আলী আকবরের উপস্থাপনায় বিক্ষোভ মিছিল পরবর্তী ‘আলভান্ডারী’ হুটেলের সামনে বক্তব্য রাখেন মাওঃ জাকারিয়া আল মামুন, হাফিয মুহিব্বুল হক,হাফিজ মাওঃ আব্দুল মুক্তাদির, মাওঃ আলতাফুর রহমান, মাওঃ মাছরুফ আহমদ, মাওঃ মাহমুদ। ছিলেন শাইখ আব্দুল গফফার জামালগঞ্জী মাওঃ লুতফুর রহমান নজাতপুরী মুফতি তাওহিদুল ইসলাম মাওঃ আহসান উল্লাহ মুফতি আসআদ আখঞ্জী, সাঈদুর রহমান সুমন, কাওসার মাহমুদ, হাঃ মাহদী হাসান হাঃ মুঈনুল ইসলাম, মাওঃ আলতাফুর রহমান প্রমুখ।
ববক্তারা বলেন বাংলাদেশ একটি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ। এদেশে যুগযুগ ধরে হিন্দু মুসলিমের সহাবস্থান বিদ্যমান। কিন্তু ভারতে মহানবী স.কে কটুক্তি করে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা উস্কে দিয়ে একটি নৈরাজ্যকর পরিস্থিতি তৈরি করছে। তিনি অবিলম্বে সংসদে নিন্দা প্রস্তাব এনে আনুষ্ঠানিক প্রতিবাদ জানিয়ে নব্বইভাগ মুসলমানের ক্ষোভ শান্ত করার আহবান জানান। নুপুর শর্মা ও জিন্দালের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী ভারতকে বিশ্ববাসীর সামনে আনুষ্ঠানিকভাবে ক্ষমা চাওয়ার আহবান জানান। বক্তারা আরো বলেন, ভারতের বিজেপি সরকারের মূখপাত্র মহানবী স.কে কটুক্তি করে বিশ্ব মুসলমানদের অন্তরে আগুন লাগিয়ে দিয়েছে। এর মাধ্যমে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করে বিশ্বব্যাপী দাঙ্গা ও বিশৃঙ্খলা তৈরি করতে চাইছে। মহানবী স. এর মোহাব্বত ও ভালবাসা প্রতিটি মুসলমানের হৃদয়ে প্রোথিত উল্লেখ করে নেতৃবৃন্দ বলেন বিশ্বের যে কোনো প্রান্তে নবী মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম-কে নিয়ে অপমানজনক বক্তব্য কেনো মুসলমান বরদাশত করতে পারে না।
নেতৃবৃন্দ বলেন শুধু নুপুর শর্মার বহিষ্কার নয় তাকে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিয়ে অবিলম্বে ভারতকে বিশ্ববাসীর সামনে আনুষ্ঠানিকভাবে ক্ষমা চাইতে হবে। অন্যথায় বিশ্বজুড়ে মুসলমানদের ক্ষোভের বিস্ফোরণে ভারতের চরম পরিণতি অপেক্ষা করছে। সেই বিস্ফোরণের দাবানলে পুড়ে ছারখার হয়ে যাবে ভারত।
সর্বশেষে সভাপতি শাইখ মাওঃ আব্দুল কাদীর ( শাইখে শেরমস্তপুরীর) দোয়ার মাধ্যমে বিক্ষোভ মিছিলের সমাপ্তি ঘোষণা হয়।

এই সংবাদটি 11 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

[latest_post][single_page_category_post]

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com