নারীকে টেনে নেওয়া গাড়িটি চালাচ্ছিলেন ঢাবির সাবেক শিক্ষক

প্রকাশিত: ৭:৫৭ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২, ২০২২

নিহত রুবিনা আক্তার

প্রত্যক্ষদর্শীদের ভাষ্যমতে, ওই নারী প্রাইভেট কারের বাম্পারে আটকে যান। তখন গাড়ি না থামিয়ে দ্রুতগতিতে চালিয়ে যান চালক। তাঁকে ধাওয়া করে নীলক্ষেত মোড়ের কাছে ধরে ফেলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। এ সময় ওই নারীকে জীবিত উদ্ধার করা হলেও ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়েছে।

রুবিনা আক্তার (৪৫) নামের ওই নারী রাজধানীর তেজগাঁও এলাকার বাসিন্দা। দেবরের মোটরসাইকেলে চড়ে হাজারীবাগে বাবার বাসায় ফিরছিলেন তিনি। প্রাইভেট কার আটকে ওই নারীকে উদ্ধারের সময় গাড়ির চালককে বেদম মারধর করেন বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা। এ সময় তিনি নিজেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আজহার জাফর শাহ বলে পরিচয় দিয়েছিলেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে দুর্ঘটনায় নিহত রুবিনা আক্তারের ভাই মিলনের আহাজারি। আজ শুক্রবার বিকেলে, ঢাকা মেডিকেল কলেজ, জরুরি বিভাগ

বর্তমানে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন পঞ্চাশোর্ধ্ব জাফর শাহ। তাঁর বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর এ কে এম গোলাম রব্বানী প্রথম আলোকে বলেন, ক্লাসসহ একাডেমিক কার্যক্রমে নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগে ২০১৮ সালে আজহার জাফর শাহকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে চাকরিচ্যুত করা হয়।

আজহার জাফর শাহের গাড়ি ভাংচুর করেন বিক্ষুব্ধরা

আজহার জাফর শাহের গাড়ি ভাংচুর করেন বিক্ষুব্ধরা

তাঁর বাসা কোথায়, তা জানা নেই। এ ঘটনায় আইনপ্রয়োগকারী সংস্থা বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা নেবে।

–প্রথম আলো

এই সংবাদটি 49 বার পঠিত হয়েছে

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com