মঙ্গলবার, ০৩ জানু ২০১৭ ১১:০১ ঘণ্টা

গাড়ি চুরি রোধে ৩ তরুণের প্রযুক্তি আবিস্কার

Share Button

গাড়ি চুরি রোধে ৩ তরুণের প্রযুক্তি আবিস্কার

সিলেট রিপোর্ট: গাড়ি চুরি রোধে এসেছে নতুন প্রযুক্তি। অত্যাধুনিক এই প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে যেকোনো যানবাহনকে রাখা যাবে নিরাপদ।  ‘ভেহিক্যাল সিকিউরিটি সিস্টেম : এ কম্বিনেশন অব ডিটেকটিং ইন্টারলকিং এন্ড ট্র্যাকিং’ প্রযুক্তি  উদ্ভাবন করেছেন উদ্যমী তিন তরুণ। তিন তরুণের এই উদ্ভাবনকে লিডিং ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. কামরুজ্জামান চৌধুরী ‘তারুণ্যের শক্তিতে বাংলাদেশের এগিয়ে যাওয়া বলে’ মন্তব্য করেছেন।
জানাগেছে, সিলেটের লিডিং ইউনিভার্সিটির ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) বিভাগের শিক্ষার্থী সাব্বির আহমদ, আশিক হোসেন ও জামাল মিয়া। যানবাহন চুরির বিষয়টি ভাবিয়ে তুলে এই তিন তরুণকে। কিভাবে যানবাহনের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা যায়, সেই ভাবনা থেকেই উদ্ভাবন করেন ‘ভেহিক্যাল সিকিউরিটি সিস্টেম’ নামক যন্ত্রটি।
যন্ত্রটির উদ্ভাবকদের সাথে কথা বলে জানা যায়, ‘ভেহিক্যাল সিকিউরিটি সিস্টেম’ নামক যন্ত্রটি যানবাহনের পূর্ণাঙ্গ নিরাপত্তা দিতে সক্ষম। যন্ত্রটির মাধ্যমে গাড়ির মূল মালিক এবং তিনি চাইলে তার পরিচিতি ও ঘনিষ্ট আরো কয়েকজনের ফিঙ্গার প্রিন্ট যন্ত্রটির ফিঙ্গার প্রিন্ট সেন্সরে সেট করে রাখতে পারেন। সবমিলিয়ে ২শ’ জনের ফিঙ্গার প্রিন্ট সেট করে রাখা যাবে। ওই যন্ত্রে যাদের ফিঙ্গার প্রিন্ট সেট করে রাখা, শুধুমাত্র তারা ছাড়া অন্য কেউ গাড়ি স্টার্ট দিতে পারবেন না। ফিঙ্গার প্রিন্ট সেট করা নয়, এমন ব্যক্তি গাড়ি স্টার্ট দিতে চাইলে কিংবা গাড়িতে স্পর্শ করলেই মালিকের মোবাইল ফোনে স্বয়ংক্রিয়ভাবে একটি ম্যাসেজ চলে আসবে। ফিরতি ম্যাসেজে মালিক গাড়িটি ইন্টারলক করে দিতে পারবেন।
উদ্ভাবক সাব্বির, আশিক ও জামাল জানান, কোন অচেনা ব্যক্তি গাড়ি স্পর্শ করলে ভেহিক্যাল সিকিউরিটি সিস্টেমের কারণে স্বয়ংক্রিয়ভাবে অ্যালার্ম বাজতে থাকবে। এছাড়া মালিকের নাম্বারে ম্যাসেজের মাধ্যমে গাড়ির অবস্থানও জানিয়ে দেওয়া হবে। মালিক চাইলে ম্যাসেজের মাধ্যমে গাড়ি বন্ধ করতে পারেন, চালুও করতে পারেন। তারা জানান, যানবাহন চুরি করার উদ্দেশ্যে কেউ যদি ভেহিক্যাল সিকিউরিটি সিস্টেমের তার ছিঁড়ে ফেলে, সেক্ষেত্রে যানবাহন স্বয়ংক্রিয়ভাবেই পুরো বন্ধ থাকবে।
যন্ত্রটির উদ্ভাবক সাব্বির বলেন, প্রাথমিক অবস্থায় যন্ত্রটি তৈরীতে খরচ হয়েছে প্রায় সাড়ে ১১ হাজার টাকা। তবে ইন্ড্রাস্ট্রিয়ালি যদি যন্ত্রটি তৈরী করা যায়, সেক্ষেত্রে ৬-৭ হাজার টাকা খরচ পড়বে।

এই সংবাদটি 1,072 বার পড়া হয়েছে

WP2FB Auto Publish Powered By : XYZScripts.com