জগন্নাথপুরের রানীগঞ্জ সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন যোগাযোগ মন্ত্রী

প্রকাশিত: ১২:৪৪ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ১৫, ২০১৭

জগন্নাথপুরের রানীগঞ্জ সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন যোগাযোগ মন্ত্রী

সিলেট রিপোর্ট: পাগলা-জন্নাথপুর-আউশকান্দি (আব্দুস সামাদ আজাদ মহাসড়কের) কুশিয়ারা নদীর উপর রানীগঞ্জ সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর প্রস্থাপন করলেন সড়ক পরিবহন ও যোগাযোগ মন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।
শনিবার (১৪ জানুয়ারি) উপজেলার রাণীগঞ্জ ইউনিয়নের রাণীগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে সেতুটির ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন তিনি।
বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাডভোকেট মিসবা উদ্দিন সিরাজের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- সুনামগঞ্জ ও হবিগঞ্জ আসনের সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি এ্যাডভোকেট শামসুন নাহার রব্বানী শাহানা, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মতিউর রহমান, সাবেক সহ-সভাপতি সিদ্দিক আহমদ, সাধারণ সম্পাদক ব্যারিষ্টার এম. এনামুল কবির ইমন, নব-নির্বাচিত সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আ’লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নুরুল হুদা মুকুট, জেলা প্রশাসক শেখ রফিকুল ইসলাম, পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ, সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আয়ুব বকত জগলু, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি হরমুজ আলী, দক্ষিন সুনামগঞ্জের উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কালাম, জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আ’লীগের সভাপতি আকমল হোসেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাসুম বিল্লাহ, জগন্নাথপুরের পৌর মেয়র আব্দুল মনাফ, সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রিজু, যুক্তরাজ্য মিডল্যান্ড আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আকমল খাঁন, জগন্নাথপুর উপজেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ভাইস চেয়াম্যান মুক্তাদির আহমদ মুক্তা, জেলা পরিষদের নব নির্বাচিত সদস্য মাহতাব উল আলম সমুজ, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি কামাল উদ্দিন,সাধারণ সম্পাদক আবুল হোসেন লালন, জগন্নাথপুর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল হাসিম, আরশ মিয়া,সিরাজুল হক, শহিদুল ইসলাম রানা, আবু ঈমানী, হাজী মখলুছ মিয়া প্রমুখ।

এর আগে শনিবার সকাল সাড়ে ১১টায় ওবায়দুল কাদের ও এমএ মান্নান হেলিকপ্টার যোগে রাণীগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে আসেন। অনুষ্ঠানের মঞ্চে আসার পর দলীয় নেতাকর্মীসহ সরকারের বিভিন্ন দপ্তরের প্রধানরা ফুলের তোড়া দিয়ে তাদের বরণ করে নেন। পরে সুনামগঞ্জ পুলিশের পক্ষ থেকে প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথিকে গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়। অনুষ্টান শেষে দুপুরে ওবায়দুল কাদের রাণীগঞ্জ থেকে হেলিকাপ্টার যোগে ঢাকার উদেশে যাত্রা করেন।

উল্লেখ যে, সড়ক ও জনপথের অধীনে ১২৬ কোটি টাকা ব্যয়ে  চায়না রেলওয়ে ব্যুরো গ্রুপ  ও এমএম বিল্ডার্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ার্স লিমিটেড এই সেতুর কাজ শুরু করেছে। সেতুটি হবে দুই লেন বিশিষ্ট অত্যাধুনিক বক্স গার্ডার সমৃদ্ধ ৭০২ মিটার দীর্ঘ ও ১০ মিটার প্রস্থের। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ৩ বছরের মধ্যে  সেতুর নির্মাণ কাজ শেষ করবে। সেতুটি নির্মিত হলে সুনামগঞ্জ জেলা সদর থেকে রাজধানী শহর ঢাকার দূরত্ব ৬০ কিলোমিটার  ও ২ ঘন্টা  সময় সাশ্রয় হবে।

এই সংবাদটি 72 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

[latest_post][single_page_category_post]

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com