সোমবার, ২৩ জানু ২০১৭ ০৫:০১ ঘণ্টা

ট্রাম্পের শপথ অনুষ্ঠানে উচ্চারিত কুরআনের আয়াতসমুহ

Share Button

ট্রাম্পের শপথ অনুষ্ঠানে উচ্চারিত কুরআনের আয়াতসমুহ

রশীদ আহমদ,নিউইর্য়ক থেকে:: ওয়াশিংটনে ন্যাশনাল ক্যাথেড্রালে আমেরিকার নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প শপথ গ্রহণ মাধ্যমে নিজের কাজ শুরু করেন ২১ জানুয়ারি । অনুষ্ঠানের শুরুর দিকে ভার্জিনিয়ার এক মসজিদের পেশ ইমাম মাওলানা মোহাম্মাদ মাজিদ পবিত্র কুরআন তিলাওয়াত করেন। খবর ইকনা
গতানুগতিকভাবে প্রত্যেক দেশের প্রেসিডেন্টের কাজ শুরু করার পূর্বে এধরনের অনুষ্ঠান উদযাপন করে থাকেন। আমেরিকার প্রথম প্রেসিডেন্ট জর্জ ওয়াশিংটনের সময় বিভিন্ন ধর্মের নেতাদের উপস্থিতিতে বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের মাধ্যমে প্রেসিডেন্ট কাজ শুরু করেছেন। সেই আদলটি এখনও অব্যাহত রয়েছে।
ট্রাম্পের অভিষেক অনুষ্ঠানে বিভিন্ন ধর্মের ২৬ জন ধর্মীয় নেতা উপস্থিত ছিলেন। এরমধ্যে মুসলিম প্রতিনিধি হিসেবে মোহাম্মাদ মাজিদও উপস্থিত ছিলেন এবং কুরআন তিলাওয়াত করেন।

ভার্জিনিয়ার ‘অ্যাডামস’ অঞ্চলের বৃহত্তম মসজিদের পেশ ইমাম মোহাম্মাদ মাজিদ নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের শপথ গ্রহণেরে অনুষ্ঠান কুরআন তিলাওয়াত করেছেন। তিনি যে আয়াতগুলো তিলাওয়াত করেছেন, সেখানে তিনি ট্রাম্পের উদ্দেশ্যে রাজনৈতিক বার্তা উত্থাপন করেন।

তিনি সর্বপ্রথম যে আয়াতটি তিলাওয়াত করেন সেটি হচ্ছে সূরা হুজরাতের ১৩ নম্বর আয়াত:

«يَا أَيُّهَا النَّاسُ إِنَّا خَلَقْنَاكُمْ مِنْ ذَكَرٍ وَأُنْثَى وَجَعَلْنَاكُمْ شُعُوبًا وَقَبَائِلَ لِتَعَارَفُوا إِنَّ أَكْرَمَكُمْ عِنْدَ اللَّهِ أَتْقَاكُمْ إِنَّ اللَّهَ عَلِيمٌ خَبِيرٌ

হে মানবসম্প্রদায় আমরা তোমাদের এক পুরুষ ও এক নারী থেকে সৃষ্টি করেছি এবং তোমাদের বিভিন্ন জাতি ও গোত্রে বিভক্ত করেছি যাতে তোমরা পরস্পরে পরিচিতি হও। নিশ্চয় আল্লাহর কাছে সে-ই সর্বাধিক সম্ভ্রান্ত যে সর্বাধিক পরহেজগার। নিশ্চয় আল্লাহ সর্বজ্ঞ সবকিছুর খবর রাখেন।

এরপর মোহাম্মাদ মাজিদ সূরা রূমের ২২ নম্বর তিলাওয়াত করেন «وَمِنْ آيَاتِهِ خَلْقُ السَّمَاوَاتِ وَالْأَرْضِ وَاخْتِلَافُ أَلْسِنَتِكُمْ وَأَلْوَانِكُمْ إِنَّ فِي ذَلِكَ لَآيَاتٍ لِلْعَالِمِينَ

আর তাঁর নিদর্শনাবলির মধ্যে এটাও একটি যে আকাশমণ্ডলী ও ভূমণ্ডল সৃষ্টি এবং তোমাদের ভাষা ও বর্ণের বৈচিত্র্য নিশ্চয়ই এতে জ্ঞানীদের জন্য নিদর্শনসমূহ রয়েছে।

অ্যাডামস অঞ্চলের বৃহত্তম ওই মসজিদ কমিটির চেয়ারম্যান রিজওয়ান জাকা বলেন, নির্বাচনের পর থেকে মুসলমানদের সম্পর্কে অনেকে যখন বিভিন্ন কথা বলতে লাগল, সেই কথা বিবেচনা করে এই আয়াতটি নির্বাচন করা হয়েছে। যাতে করে আমরা এই আয়াতের মাধ্যমে জনগণকে বুঝাতে পারি- সকল ধর্ম ও মাজহাবের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করা আমাদের দায়িত্ব। কারণ মহান আল্লাহ আমাদের এভাবেই সৃষ্টি করেছেন।

এই সংবাদটি 1,062 বার পড়া হয়েছে

WP2FB Auto Publish Powered By : XYZScripts.com