দূর্গত এলাকার কৃষি ঋণ মওকুফ করা হোক: শাহীনুর পাশা চৌধুরী

প্রকাশিত: ১০:০৪ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ৭, ২০১৭

দূর্গত এলাকার কৃষি ঋণ মওকুফ করা হোক: শাহীনুর পাশা চৌধুরী

সিলেট রিপোর্ট: জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব, সাবেক এমপি এডভোকেট মাওলানা শাহীনূর পাশা চৌধুরী বলেন, কৃষি নির্ভর এলাকা সুনামগঞ্জ সহ হাওর পারের সকল কৃষকরা আজ চরম সংকটকাল অতিক্রম করছে। জীবন জীবিকা নির্বাহের রোরো ফসল অকাল বন্যায় গ্রাস করে ফেলেছে। আজ কৃষকের ভাষা কান্না। জনাব পাশা বলেন, কৃষক বাঁচলে দেশ বাঁচবে। তিনি সরকারের কাছে জোর দাবী জানিয়ে বলেন, অবিলম্বে সুনামগঞ্জ সহ প্লাবিত হাওর এলাকাকে দূর্গত এলাকা ঘোষণা করুন। হাওর উন্নয়নের নামে বাঁধ নির্মাণে যারা দুর্নীতি করেছে তাদের ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ সহ কৃষকদের কৃষি ঋণ মওকুফেরও দাবী জানান।
৭ এপ্রিল শুক্রবার বাদ জুম্মা সিলেট নগরীর কোর্ট পয়েন্টে তারই আহবানে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে বক্তৃতাকালে এডভোকেট মাওলানা শাহীনুর পাশা চৌধুরী উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।
মানববন্ধনে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মদন মোহন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের সাবেক প্রিন্সিপাল লে: কর্নেল আতাউর রহমান পীর। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জমিয়তের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি হাফিজ মাওলানা মনছুরুল হাসান রায়পুরী, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের কেন্দ্রীয় নায়েবে আমীর মাওলানা রেজাউল করিম জালালী, মহানগর জমিয়তের সাধারণ সম্পাদক হাফিজ সৈয়দ শামীম আহমদ, ইসলামী ঐক্যজোটের কেন্দ্রীয় নেতা মাওলানা মুফতী ফয়জুল হক জালালাবাদী, জমিয়ত নেতা মাওলানা আব্দুল মালিক চৌধুরী, জগন্নাথপুর-দক্ষিণ সুনামগঞ্জ কল্যাণ ট্রাস্টের সেক্রেটারী মাওলানা আলী নূর, মাওলানা সৈয়দ মুসাদ্দেক আহমদ, জমিয়ত নেতা মাওলানা তোফায়েল আহমদ উসমানী, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস নেতা মাওলানা আরিফুল হক ইদ্রিস, ইসলামী ঐক্যজোট নেতা প্রিন্সিপাল মাওলানা জহুরুল হক, ছাত্র জমিয়তের কেন্দ্রীয় নেতা মাওলানা মুতিউর রহমান, মাওলানা সাঈদুজ্জামান, মাওলানা আছাদ উদ্দিন, কবি আজমল আহমদ, জগন্নাথপুর ডিগ্রি কলেজ ছাত্রদলের সভাপতি আবুল হাসনাত আমীর, মাদানী কাফেলার সভাপতি রুহুল আমীন নগরী, সালেহ আহমদ শাহবাগী, হাফিজ আব্দুল করিম দিলদার, শাহিদ হাতিমী, মাওলানা আরিফ রব্বানী, ছাত্রনেতা নাজমুল ইসলাম, শেখ আলবাব, আরিফ আহমদ চৌধুরী, শুয়েব আহমদ, মাছরুফ আহমদ, সালমান আহমদ, মিছবাহুর রহমান নাহিদ প্রমুখ।
মানববন্ধনে দেশ ও জাতির সার্বিক কল্যাণ কামনা করে মোনাজাত পরিচালনা করেন হাফিজ মাওলানা মনছুরুল হাসান রায়পুরী। শুরুতে কালেম পাক থেকে তেলাওয়াত করেন হাফিজ শহিদ হাতিমী।
কর্মসূচি ঘোষণা- ৮ এপ্রিল শনিবার সিলেটের জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি পেশ, ১০ এপ্রিল সোমবার দুর্গত এলাকা পরিদর্শন ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধির সাথে মতবিনিময় সভা।

এই সংবাদটি 97 বার পঠিত হয়েছে

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com