মঙ্গলবার, ২২ অক্টো ২০১৯ ০৩:১০ ঘণ্টা

শিশু তুহিন হত্যা মামলায় বাবা ও দুই চাচা ফের রিমান্ডে

Share Button

শিশু তুহিন হত্যা মামলায় বাবা ও দুই চাচা ফের রিমান্ডে

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে শিশু তুহিন হত্যা মামলায় রিমান্ড শেষে তুহিনের বাবা
আব্দুল বাছিরসহ ৩ আসামির আবারও রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।
সোমবার দুপুরে সুনামগঞ্জ চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শ্যাম কান্ত সিনহা তাদের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
তুহিন হত্যা মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা মো. আবু তাহের মোল্লা তুহিনের বাবা আব্দুল বাছির, চাচা আব্দুল মোছাব্বির ও জমসেদকে সোমবার দুপুরে সুনামগঞ্জ চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শ্যাম কান্ত সিনহা’র আদালতের হাজির করেন। আইও প্রত্যেককে ৭দিন করে রিমান্ড প্রার্থনা করলে আদালত তুহিনের বাবা আব্দুল বাছিরকে ৫দিন এবং চাচা আব্দুল মোছাব্বির ও জমসেদকে ৩দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
এর আগে গত শুক্রবার বিকেলে ৩দিনের রিমান্ড শেষে তুহিনের বাবা আব্দুল বাছির, চাচা আব্দুল মোছাব্বির ও জমসেদকে সুনামগঞ্জ চিফ ম্যাজিস্ট্রেট আদালত (দিরাই জোন)’র বিচারক মো. খালেদ মিয়ার আদালতে হাজির করা হলে আদালত আসামিদের জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।
সুনামগঞ্জের কোর্ট ইন্সপেক্টর আশেক সুজা মামুন জানান, তাদেরকে রিমান্ডে নেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।
প্রসঙ্গত, গত ১৫ অক্টোবর মঙ্গলবার বিকেলে জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (দিরাই জোন’র বিচারক) মো. খালেদ মিয়ার আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি জবানবন্দী দেয় তুহিনের চাচা নাছির ও চাচাতো ভাই শাহরিয়ার। একই সময়ে সুনামগঞ্জ চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শ্যাম কান্ত সিনহা’র আদালতের পুলিশ তুহিন হত্যা মামলায় তুহিনের বাবা আব্দুর বাছির, চাচা আব্দুল মোছাব্বির ও জমসেদ আলীর ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন তদন্তকারি কর্মকর্তা দিরাই থানার এসআই মো. আবু তাহের মোল্লা। আদালত আসামিদের ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
উল্লেখ্য, গত ১৩ অক্টোবর রোববার রাত ১টার দিকে জেলার দিরাই উপজেলার রাজানগর ইউনিয়নের কেজাউড়া গ্রামে তুহিন হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে। পরদিন ১৪ অক্টোবর সোমবার ভোরে গাছের সঙ্গে ঝুলানো অবস্থায় শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ সময় তুহিনের কান, লিঙ্গ কাটা ও পেটে দুটি ধারালো ছুরি বিদ্ধ ছিল। ওইদিন তুহিনের বাবা আব্দুল বাছিরসহ ৭ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হেফাজতে নেয় পুলিশ। ১৫ অক্টোবর মঙ্গলবার তুহিনের চাচা নছির ও চাচাতো ভাই শহিরিয়ার আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি জবানবন্দী দেয় এবং পুলিশ নিহত তুহিনের বাবা আব্দুল বাছির, চাচা আব্দুল মছব্বির ও জমসেদের রিমান্ড চায় পুলিশ।

এই সংবাদটি 1,003 বার পড়া হয়েছে

WP2FB Auto Publish Powered By : XYZScripts.com