কোরবানির পশুর চামড়া সংরক্ষণে লবণের পর্যাপ্ত মজুত রয়েছে: শিল্পমন্ত্রী

প্রকাশিত: ১২:৫৪ পূর্বাহ্ণ, জুন ২৩, ২০২১

কোরবানির পশুর চামড়া সংরক্ষণে লবণের পর্যাপ্ত মজুত রয়েছে: শিল্পমন্ত্রী

ডেস্ক রিপোর্ট

:

কোরবানির পশুর চামড়া যাতে পাচার না হয়, সে বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে বলেছেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন। পাশাপাশি কোরবানির পশুর চামড়া সংগ্রহ ও সংরক্ষণে যাতে কোনোভাবেই অব্যবস্থাপনা তৈরি না হয়, সেদিকে সবাইকে লক্ষ্য রাখতে নির্দেশনা দিয়েছেন তিনি।

সোমবার (২১ জুন) চামড়া খাতের উন্নয়নে সুপারিশ প্রদান ও কর্মপরিকল্পনা প্রণয়নে টাস্কফোর্সের তৃতীয় সভায় সভাপতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন শিল্পমন্ত্রী।

সভায় বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন, শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার, বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (বিডা) নির্বাহী চেয়ারম্যান মো. সিরাজুল ইসলাম, শিল্পসচিব জাকিয়া সুলতানা, বিসিক চেয়ারম্যান মোশতাক হাসান এনডিসি, জননিরাপত্তা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. শাহেদ আলী, অর্থ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. সাইদুর রহমান, বাংলাদেশ ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মো. শাহিন আহমেদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, ‘কোরবানির চামড়া সংরক্ষণের জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণ লবণের মজুত রয়েছে। করোনা পরিস্থিতি বিবেচনা করে কোরবানির চামড়া ছাড়ানো, সংগ্রহ ও সংরক্ষণে স্বাস্থ্যগত সুরক্ষার বিষয়ে জনগণকে সচেতন করতে বিভিন্ন মাধ্যমে প্রচারের ব্যবস্থা করতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘কোরবানির জন্য দেশে পর্যাপ্ত সংখ্যক গবাদি পশু রয়েছে এবং কোনও গবাদি পশু আমদানি করতে হবে না। আসন্ন ঈদে যাতে দেশে অবৈধভাবে গবাদি পশু প্রবেশ করতে না পারে এবং পশুর চামড়া যাতে পাচার না হয়, সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।’

সভায় জানানো হয়, আসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষে ট্যানারি মালিকদের সহজ শর্তে ঋণ প্রদান এবং চামড়া ব্যবসায়ীদের পূর্বের ঋণ সংক্রান্ত জটিলতা নিরসনের বিষয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়, আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ, অর্থবিভাগ, বাংলাদেশ ব্যাংকসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে নিয়ে দ্রুত সভা করা হবে। টাস্কফোর্সের কর্মপরিধির (টিওআর) অন্তর্ভুক্ত অন্যান্য বিষয়গুলো নিয়ে কাজ করার জন্য সাব কমিটি গঠন করার কথা বলা হয়।

সভায় আরও জানানো হয়, আসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষে জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের সহায়তায় মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় এবং ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে মসজিদের ইমাম, মৌসুমি চামড়া ব্যবসায়ী, চামড়া ছাড়ানোর সঙ্গে জড়িতদের চামড়া ছাড়ানো ও সংরক্ষণের বিষয়ে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হচ্ছে।  বাকি দিনগুলোতে আরও প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে।

সভায় বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘শিগগিরই ব্যবসায়ীদের নিয়ে চামড়ার মূল্য নির্ধারণের সভা করা হবে এবং নির্ধারিত মূল্যে চামড়া কেনাবেচার জন্য মনিটরিং টিম গঠন করতে হবে।’

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী বলেন, ‘কোরবানির পশু জবাইয়ে স্বাস্থ্য ও পরিবেশ সম্মতভাবে বিধিনিষেধ অনুসরণ করতে হবে। যেখানে সেখানে কোরবানির পশু জবাই করা যাবে না। বিশেষ করে রাস্তার ওপরে কোরবানির পশু জবাই করা যাবে না।’

শিল্প প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘চামড়া সঠিকভাবে ছাড়ানো, সংগ্রহ ও সংরক্ষণের বিষয়ে সচেতনতামূলক প্রচার-প্রচারণা বাড়াতে হবে।’ চামড়ার ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করার তাগিদ দেন তিনি।

এই সংবাদটি 111 বার পঠিত হয়েছে

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com