বৃহস্পতিবার, ০১ নভে ২০১৮ ০৯:১১ ঘণ্টা

প্রধানমন্ত্রী অন্যদলের সঙ্গে বসতেও রাজি: কাদের

Share Button

প্রধানমন্ত্রী অন্যদলের সঙ্গে বসতেও রাজি: কাদের

ডেস্ক রিপোর্ট: ঐক্যফ্রন্ট ও যুক্তফ্রন্ট ছাড়াও অন্যান্য দলের সঙ্গেও সংলাপ করতে আগ্রহী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। নিজ কার্যালয়ে বাংলাদেশে নিযুক্ত ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূত ম্যারি অ্যানিক বৌর্ডিন ও জার্মানির রাষ্ট্রদূত পিটার ফারহানহোল্টজের সঙ্গে বৈঠকের পর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপি, যুক্তফ্রন্ট ও ঐক্যফ্রন্ট ছাড়াও অন্যান্য দলের সঙ্গে আওয়ামী লীগ সংলাপের পক্ষে ছিল না।

কিন্তু আমাদের নেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দূরদর্শিতার মাধ্যমে সংলাপের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। বিষয়টি দলমত নির্বিশেষে দেশের অধিকাংশ মানুষ পছন্দ করেছেন। ওবায়দুল কাদের বলেন, ঐক্যফ্রন্টে যেহেতু বিএনপি আছে তাই সময় স্বল্পতার কারণে তাদের সঙ্গে আলাদা করে সংলাপ করার সময় পাওয়া যাবে না। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দুটি মামলার রায় ইতিমধ্যে হয়ে গেছে। সেক্ষেত্রে সংলাপে এ ব্যাপারে আলোচনা কি হতে পারে, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিষয়টি আদালতের।
এটির সঙ্গে সংলাপকে সম্পৃক্ত করা বোধহয় ঠিক হবে না। তবে আলোচনার সুযোগ আছে। নির্বাচনকালীন সরকারের বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, সরকার আছে থাকবে। তবে সরকারের কাজ সংকুচিত হয়ে যাবে। ইলেকশন কমিশনের আচরণবিধি আমরা সবাই মেনে নেবো। ওবায়দুল কাদের বলেন, আমি তাদের (দুই অ্যাম্বাসেডর) নির্বাচনের আচরণবিধি বোঝালাম, তারা খুশি। আচরণবিধির বাইরে গিয়ে মন্ত্রী এমপি কেউ কিছু করতে পারবে না।

আচরণবিধি মেনে নেয়াই লেভেল প্লেয়িং ফিল্ডের ফোকাস। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, আলোচনা কোনো নির্দিষ্ট করা নেই। যেকোনও বিষয়ে আলোচনা করতে পারবেন। হঠাৎ করে বদরুদ্দোজা চৌধুরীসহ ঐক্যফ্রন্ট প্রস্তাব পাঠিয়েছে সংলাপের। শুক্রবার (২ নভেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় সংলাপের আহ্বান জানানো হয়েছে। ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে আছে। যদি ৪, ৫ ও ৬ই নভেম্বর শিডিউল ঘোষণা হয়ে যায়, তাহলে কিভাবে বিএনপির সঙ্গে সংলাপ হবে? প্রধানমন্ত্রী ময়মনসিংহ থেকে ফিরে যুক্তফ্রন্টের সঙ্গে সংলাপ করবেন। প্রশ্ন আসতে পারে শুধু ঐক্যফ্রন্ট আর যুক্তফ্রন্টের সঙ্গেই সংলাপ হবে। সে ব্যাপারটা পরিষ্কার করা দরকার। আমরা অন্য দলের সঙ্গেও সংলাপে বসবো। সংবিধান সম্মতভাবে সংলাপের কথা বলা হয়েছে, কিছু কিছু বিষয় সংবিধানসম্মত নয়, সেক্ষেত্রে আলোচনা কি হবে জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের বলেন, সংবিধান সম্মতভাবে সংলাপের আলোচনা, সংলাপে যেটা আলোচনার সুযোগ আছে, আলোচনা করে একটা ফলাফলও আসবে। তার আগে আমি এ ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করবো না। কি ফলাফল বেরিয়ে আসবে তা আমি আগে থেকে বলতে পারবো না।

এই সংবাদটি 1,003 বার পড়া হয়েছে

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com