রবিবার, ১৮ নভে ২০১৮ ০৮:১১ ঘণ্টা

আলেম সমাজকে সম্মান করুন, তাদের ওপর আস্থা রাখুন : আহমদ শফী

Share Button

আলেম সমাজকে সম্মান করুন, তাদের ওপর আস্থা রাখুন : আহমদ শফী

ডেস্করিপোর্ট: হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির ও বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশের সভাপতি শাইখুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী বলেছেন, হুজুর শব্দটি সবার কাছে অন্যরকম একটি শব্দ হয়ে যাচ্ছে দিনে দিনে। অনেকেই এখন আলেমদের অবদান অস্বীকার করে। আমি বলতে চাই আলেম ওলামা ছাড়া দীন কখনো পূর্ণ হতে পারে না। সমাজ অসম্পূর্ণ থাকে।

তিনি বলেন, যারা বলে আলেম ওলামাদের প্রয়োজন নেই তাদের ঠিক বলছেন না। আমি তাদের উদ্যেশে বলতে চাই- দেখো, তুমি বিয়ে করতে গেলে একজন কাজী প্রয়োজন বা একজন ভাল মৌলভী প্রয়োজন সেটা ছাড়া কখনো বিয়ে সম্ভব নয়। তুমি যখন নামাজ পড়তে যাও তখন তোমাকে সেই হুজুরের পেছনে নামাজ আদায় করতে হয়।

তুমি মসজিদে যখন নামাজ পড়তে যাও তখন সেই মোয়াজ্জেনের আজানের শব্দেই যাও। আর তোমার মৃত্যুর পর তোমার জানাজা তো সেই ইমামই পড়াবে। তাহলে তুমি কেন সে আলেম ওলামাকে অস্বীকার করছো।

আল্লামা আহমদ শফী আরো বলেন, হাদীসে আছে আলেমরা নবীর ওয়ারিশ। আর আমাদের দেশের মুরব্বিরা প্রচলিত একটা কথা বলেন সেটি হচ্ছে, যার সাথে মহাব্বত তার সাথেই কিয়ামত। তো আমরা আলেম সমাজ আপনাদের তাবলিগী দ্বীনি ভাইদের উদ্যেশে বলতে চাই দয়া করে আমরা কখনো মারপিট করিনি, করবো না। আপনারও আলেম সমাজকে সম্মান করুন। তাদের ওপর আস্থা রাখুন। তারা ভুল কিছু করছেন না।

শনিবার (১৭ নভেম্বর) চট্টগ্রামের ওয়াসা মোড়ে অবস্হিত জমিয়তুল ফালাহ মসজিদ ময়দানে চলমান তাবলীগ জামাতের ওয়াজাহাতি জোড়ে সভাপতির বক্ত্যব্যে তিনি এ কথা বলেন।

সকাল ৮.৩০ থেকে শুরু হওয়া এ সম্মেলন সবার উপস্থিতিতে ভরপুর হয়ে উঠে কানায় কানায়। এতে ধর্মপ্রাণ ইসলমিক তাওহীদি জনতা ও মাদরাসা’র শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি ছিল লক্ষ্য করার মতো।

ওয়াজাহাতি জোড়ে অন্যদের মধ্য বক্তব্য রাখেন, জামিয়া আজিজুল উলুম বাবুনগর মাদরাসা’র মুহতামিম আল্লামা মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী, আল জামিয়াতুল ইসলামিয়া পটিয়ার পরিচালক আল্লামা আবদুল হালীম বুখারী, হেফাজত মহাসচীব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী, তাবলীগ জামাতের শুরা সদস্য হাফেজ মাওলানা মুহাম্মদ যুবায়ের, জিরি মাদরাসার মুহতামিম আল্লামা শাহ মোহাম্মাদ তৈয়ব, দারুল মাআরিফের পরিচালক আল্লামা সুলতান যওক নদভী, লালখান বাজার মাদরাসার মুহতামিম মুফতি ইজহারুল ইসলাম চৌধুরী ও মাওলানা তাজুল ইসলাম প্রমুখ।

সভায় সবার সম্মতিক্রমে ডিসেম্বরে টঙ্গিতে জোড় এবং জানুয়ারিতে বিশ্ব ইজতেমার পূর্ব নির্ধারিত তারিখ বহালের সিদ্ধান্ত হয়।

আখেরি মুনাজাতের মাধ্যমে দুপুর ১.২০ এ সভা সমাপ্তি ঘোষণা করেন দারুল উলুম মঈনুল ইসলাম হাটহাজারী মাদরাসার মহাপরিচালক শাইখুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী।

এই সংবাদটি 1,003 বার পড়া হয়েছে

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com