কওমী ছাত্রকল্যাণ পরিষদের পরামর্শ সভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত: ৭:২৯ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৩, ২০১৬

কওমী ছাত্রকল্যাণ পরিষদের পরামর্শ সভা অনুষ্ঠিত

সিলেট রিপোর্ট:  কওমী মাদরাসার ছাত্র-শিক্ষক-আলেমসমাজকে বিশেষভাবে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি চর্চা এবং বিকাশে অবদান রাখতে হবে। এ অঙ্গনে আমাদেরকে এগিয়ে আসতে হবে। এখনো আমরা বিষয়টির অবহেলা করছি। এই অবহেলার পরিণতি ভালো হবে না। কওমী ছাত্রকল্যাণ পরিষদের উদ্যোগে সু-চিন্তক আলেমদের নিয়ে আয়োজিত এক পরামর্শ সভায় আলোচকরা এসব কথা বলেন।

বুধবার (২ নভেম্বর ২০১৬) সন্ধ্যা ৬টায় পল্টনের অস্থায়ী অফিসে কওমি ছাত্রকল্যাণ পরিষদের উদ্যোগে সু-চিন্তক আলেমদের নিয়ে এই পরামর্শ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সংঠনের আহবায়ক আহমদুল হক উমামা এতে সভাপতিত্ব করেন। যুগ্ম আহবায়ক সুলাইমান আহমদ হুজাইফা পরিচালনা করেন।
আলোচক হিসেবে অংশ নেন দৈনিক প্রথম আলো`র ধর্ম বিষয়ের অতিথি লেখক শায়েখ মুফতি উসমান গনি, বিশিষ্ট লেখক ও জনপ্রিয় ফেসবুকার মাওলানা রুহুল আমীন সাদী (সাইমুম সাদী), মুহাদ্দিস ও লেখক মাওলানা ওয়ালিউল্লাহ আরমান, বাংলাটিউন`র সহ-সম্পাদক মাওলানা মামুন চৌধুরী, সংগঠক ও মুহাদ্দিস মাওলানা ইমরানুল বারী সিরাজী, কিশোরবন্ধু`র সম্পাদক মাওলানা তোফায়েল গাজালী, সংগঠনের সমন্বয়ক ও মুহাদ্দিস মাওলানা রেজাউল করীম, যুগ্ম সদস্যসচিব নিজাম উদ্দিন আদনান, প্রচারসচিব শাহীদ হাতিমী প্রমুখ।
আলোচনায় শায়েখ মুফতি উসমান গনি কওমি মাদরাসার ছাত্র-শিক্ষক-আলেমসমাজকে বিশেষভাবে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি চর্চা এবং বিকাশে অবদান রাখতে আহ্বান করেন। বলেন, এ অঙ্গনে আমাদেরকে এগিয়ে আসতে হবে। এখনো আমরা বিষয়টির অবহেলা করছি। এই অবহেলার পরিণতি ভালো হবে না।

আলোচকরা বলেন, জ্ঞান-বিজ্ঞান সম্পর্কে কওমি আলেমদের সুস্পষ্ট ধারণা রাখতে হবে। যুগের চাহিদা অনুযায়ী জ্ঞান বিকাশে এগিয়ে যেতে হবে। জ্ঞানের মাধ্যমে কঠিন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হবে। দারুল উলুম দেওবন্দের উসুল, ইতিহাস-ঐতিহ্য জেনে তা অনুসরণ করতে হবে। প্রত্যেক আলেম নিজেকে একজন দক্ষ, যোগ্য হিসাবে তৈরি করে আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য সৃষ্টির সর্বজনীন সেবা করে যেতে হবে।

অনুষ্ঠানে পরামর্শের ভিত্তিতে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়। মাওলানা আব্দুল গাফফারের মোনাজাতের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শেষ হয়।

এই সংবাদটি 443 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

[latest_post][single_page_category_post]

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com