৫ হাজার ক্বারীকে পাগড়ী দিলো আঞ্জুমান

প্রকাশিত: ১১:০১ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১১, ২০১৬

৫ হাজার ক্বারীকে পাগড়ী দিলো আঞ্জুমান

dsc_0530সিলেট রিপোর্ট: আঞ্জুমানে তালিমুল কুরআন বাংলাদেশের দু’দিন ব্যাপী দস্তারবন্দী মহাসম্মেলন শুক্রবার সম্পন্ন হয়েছে। সিলেট নগরীর দক্ষিণ সুরমাস্থ গোটাটিকর আঞ্জুমান কমপ্লেক্স মাঠে অনুষ্ঠিত হয়। আঞ্জুমানের কেন্দ্রীয় সভাপতি মাওলানা শাহ নজরুল ইসলামের উদ্বোধনী বক্তব্যের মাধ্যমে সুচিত অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় সাধারন সম্পাদক মাওলানা ক্বারী ইমদাদুল হক নোমানী। প্রথম দিনের অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন যথাক্রমে আঞ্জুমানের সহ-সভাপতি মাওলানা শায়েখ আব্দুল ওয়াহহাব, মাওলানা শাহ নজরুল ইসলাম, মাওলানা ক্বারী আব্দুল জলিল গবিনপুরী, মাওলানা আনোয়ারুল হক।
প্রথম দিনে বয়ান পেশ করেন, আমিরে আঞ্জুমানে হেফাজতে ইসলাম আল্লামা খলিলুর রহমান বর্ণভী,হাটহাজারী আরবী বিশ্ব বিদ্যালয়ের ক্বিরাআত বিভাগের প্রধান মাওলানা ক্বারী জহিরুল ইসলাম, মাওলানা ক্বারী আবুল বাশার, অধ্যক্ষ শায়েখ মিজানুর রহমান পীর সাহেব কাপাসিয়া, মুফতি সাইদ নুর ঢাকা, জামেয়া দারুল কুরআন সিলেটের প্রিন্সিপাল মাওলানা শাহীনূর পাশা চৌধুরী, মাওলানা তাফাজ্জুল হক আজিজ ঢাকা, জামেয়া মাদানিয়া সুনামগঞ্জের প্রিন্সিপাল মাওলানা শায়েখ আব্দুল বছির প্রমুখ।
আঞ্জুমানের ৩৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে অনুষ্ঠিত এই মহাসম্মেলনে পাঁচ হাজার কারী’কে সম্মাননা স্বরূপ পাগড়ী ও নারীদের ওড়না প্রদান অনুষ্ঠানের সমাপনী দিবসে চারটি অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন যথাক্রমে রেঙ্গা মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা মুহিউল ইসলাম বুরহান, আঞ্জুমানের কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা মাওলানা ক্বারী জহিরুল হক হাটহাজারী, ক্বারী মাওলানা শামসুল হক্ব, কেন্দ্রীয় সভাপতি মাওলানা শাহ নজরুল ইসলাম।
প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সৌদী আরবের শেখ হমুদ বিন আহমদ আহমারী। মালয়েশিয়া ইসলামিক ইউনিভার্সিটির লেকচারার ড. মাওলানা শহিদুল ইসলাম ফারুকী।
বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন শায়খুল হাদীস আল্লামা আব্দুস শহীদ গলমুকাপনী, মাওলানা শায়েখ আব্দুল বারী ধরমপুরী, মাওলানা ক্বারী আব্দুল হাকিম, মাওলানা সৈয়দ মুজিবুর রহমান পেশওয়ারী, মাওলানা নুরুল ইসলাম শায়খে বিশ্বনাথী, প্রিন্সিপাল মাওলানা মজদুদ্দীন আহমদ, সাবেক সংসদ সদস্য মাওলানা শাহীনূর পাশা চৌধুরী, মাওলানা রেজাউল করিম জালালী, মাওলানা মুসলেহ উদ্দীন রাজু, প্রিন্সিপাল মাওলানা মাহমুদুল হাসান, মাওলানা মুসা বিন হাবীব, মাওলানা হাম্মাদ আহমদ গাজিনগরী, মুফতি মুজিরুদ্দীন কাসেমী, মাওলানা ক্বারী আলী আজগর, ভাইস চেয়ারম্যান বালাগঞ্জ, মুফতি শিব্বির আহমদ ভাইস চেয়ারম্যান বিয়ানীবাজার, মাওলানা ক্বারী আব্দুল ওয়াহহাব, মাওলানা ক্বারী জালালুদ্দীন গবিনপুরী, মাওলানা ক্বারী আহমদ বিলাল, মাওলানা ক্বারী জুবায়ের আহমদ আনোয়ারী, মাওলানা ক্বারী নুরুল মুত্তাকিন জুনাইদ, মাওলানা ক্বারী নুরুল হুদা, মাওলানা আনোয়ারুল ইসলাম, মাওলানা আলীনুর প্রমুখ।
সমাপনী দিনে সম্মেলন পরিচালনা করেন কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি মাওলানা ক্বারী আবুল বাশার, সুনামগঞ্জ জেলা আঞ্জুমানের সহ-সভাপতি মাওলানা ক্বারী তৈয়্যিবুর রহমান চৌধুরী (ভাইস চেয়ারম্যান) ও সহসেক্রেটারী ইনাম বিন সিদ্দীক ও কবি মীম সুফিয়ান। পরিশেষে দেশ ও জাতির কল্যান ও শান্তি কামনা করে মোনাজাতের মাধ্যমে ২দিন ব্যাপি দস্তারবন্দী মহাসম্মেলনের সমাপ্তি ঘোষনা করা হয়।
সম্মেলনে উলামায়েকেরাম বলেন, শান্তিময় সমাজ প্রতিষ্ঠায় কুরআন সুন্নাহ শিক্ষার বিকল্প নেই। ইসলামের শিক্ষার মধ্যে রয়েছে মানুষের ইহকালীন ও পরকালীন শান্তি। ধর্মহীন শিক্ষা জাতিকে সঠিক পথের সন্ধান দিতে পারে না। তাই নাস্তিক্যবাদী শিক্ষা পরিহার করে সত্যিকারের ইসলামী শিক্ষার আলোকে জাতীয় পাঠ্যক্রম তৈরী করতে হবে।dsc_0534

এই সংবাদটি 458 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

[latest_post][single_page_category_post]

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com