মুক্তিতে বাধা নেই মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর

প্রকাশিত: ৬:০২ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৪, ২০১৬

মুক্তিতে বাধা নেই মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর
ডেস্ক রিপোর্ট:
সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এ এম এস কিবরিয়া হত্যার ঘটনায় বিস্ফোরক মামলায় কারাবন্দি সিলেট সিটি করপোরেশনের বরখাস্ত মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর মুক্তিতে আর কোন বাধা নেই।

সোমবার দুপুরে অ্যাপিলেড ডিভিশনের চেম্বার জজ আরিফুল হক চৌধুরীর জামিনের বিপক্ষে রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের ব্যাপারে ‘নো অর্ডার অবজকেশন’ আদেশ দিয়েছেন। এর মাধ্যমে গতকাল রবিবার উচ্চ আদালতে আরিফুল হক চৌধুরীর পাওয়া জামিন আদেশ বহাল থাকলো। তার মুক্তি আর কোন বাধা নেই।
আরিফুল হক চৌধুরীর আইনজীবী ব্যরিস্টার কাফি সিলেটভিউ২৪ডটকমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে রবিবার বিচারপতি সৈয়দ মোহাম্মদ দস্তগীর হোসেন ও বিচারপতি মো. আতাউর রহমান খানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ড. মো.বশিরউল্লাহ। আরিফুলের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন।

অ্যাটর্নি জেনারেল বশিরউল্লাহ গতকাল গণমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন, জামিনের জন্য আরিফুল হক আবেদন করায় আদালত তাকে জামিন দিয়েছেন। এখন আপিল আবেদনের নিষ্পত্তি না হওয়া পযর্ন্ত তিনি জামিনে থাকবেন। হাইকোর্টের এ জামিন আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করবে রাষ্ট্রপক্ষ। বর্তমানে মামলাটি সিলেটের দ্রুত বিচার আদালতে বিচারাধীন রয়েছে।
এদিকে সোমবার রাষ্ট্রপক্ষের আপিল আবেদনে অ্যাপিলেড ডিভিশনের চেম্বার জজ কর্তৃক ‘নো অর্ডার অবজেকশন’ আসায় আরিফের জামিন বহাল থাকলো। এর প্রেক্ষিতে বলা যায় জামিনের মাধ্যমে তার মুক্তিতে আর কোন বাধা নেই।
প্রসঙ্গত, বিগত বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সময়ে ২০০৫ সালের ২৭ জানুয়ারি হবিগঞ্জ সদরের বৈদ্যেরবাজারে গ্রেনেড হামলার নিহত হন সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এ এম এস কিবরিয়া। ঐ দিন হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল মজিদ খান হত্যা ও বিস্ফোরক আইনে দুইটি মামলা দায়ের করেন। প্রথমে সিআইডির এএসপি মুন্সি আতিকুর রহমান মামলাটি তদন্ত করে ১০ জনের বিরুদ্ধে ঐ বছরের ২০ মার্চ অভিযোগপত্র দাখিল করেন। পরে মামলার অধিকতর তদন্ত করে ২০১১ সালের ২০ জুন আরো ১৪ জনকে আসামি করে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। আগের আসামিদেরও এতে রাখা হয়।

এই সংবাদটি 1 বার পঠিত হয়েছে

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com