রবিবার, ০১ মার্চ ২০২০ ০৫:০৩ ঘণ্টা

জামালগন্জে মিছিল

Share Button

জামালগন্জে  মিছিল

সিলেটরিপোর্টঃ
জামালগঞ্জ উপজেলার সর্বস্থরের তৌহিদী জনতার উদ্যোগে ভারতীয় উগ্র হিন্দু কর্তৃক মুসলিম হত্যা-নির্যাতন,মসজিদ-মাদরাসায় অগ্নিসংযোগ করার প্রতিবাদে আজ ১ লা মার্চ বিশাল বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়।দারুস সুন্নাহ মাদরাসা জামালগঞ্জ’র পরিচালক মুহাম্মদ আলতাফুর রহমান’র পরিচালনায় ও সাচনা বাজার মাদরাসার সিনিয়র শিক্ষক মাওলানা লুৎফুর রহমান’র সভাপতিত্বে মিছিল পরবর্তী প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন খাদিমুল কুরআন মহিলা মাদরাসার মুহতামিম হাফিজ মাওলানা কাউসার আহমদ,রামপুর হাফিজিয়া মাদরাসার মুহতামিম হাফিজ মুফিজুর রহমান আলাল, দশগ্রাম কুকড়াপশী মহিলা মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা আলী আকবর,নূরে মদিনা তাহফিজুল কুরআন মাদরাসার পরিচালক হাফিজ মাওলানা মুহিব্বুল হক,সাচনা বাজার মাদরাসার শিক্ষক মাওলানা আজমল হুসাইন,লক্ষীপুর হাফিজিয়া মাদরাসার শিক্ষক হাফিজ মুবাশ্বির,খিদমাতুল ইনছান ফাউন্ডেশন জামালগঞ্জ’র সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলী উজ্জ্বল,আল হক্কুল আমিন পরিষদ জামালগঞ্জ’র সাধারণ সম্পাদক হাফিজ মাওলানা মাসরুফ আহমদ,চানপুর মাদরাসার শিক্ষাসচিব মাওলানা হুমায়ূন কবির,বেহেলী আলীপুর হোসাইনিয়া মাদরাসার শিক্ষক মাওলানা সাইফুল ইসলাম,ছাত্র জমিয়ত জামালগঞ্জ উপজেলা শাখা সভাপতি মাওলানা আল আমীন জহুর,সহ সভাপতি হাফিজ মাওলানা এহসানুল হক,ছোট ঘাগটিয়া আমিনিয়া নূরানী মাদরাসার মুহতামিম হাফিজ মশিউর রহমান,শিক্ষাসচিব হাফিজ হাবিবুল্লাহ,মাওলানা মারুফ আহমদ,সাদিকুর রহমান প্রমুখ।

বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তারা বলেন, এই হত্যা চালানোর সময় বাংলাদেশের সরকারসহ বিশ্বসমাজ নীরব দর্শকের ভূমিকা পালন করছে। বাংলাদেশ সরকার এই গণহত্যার জন্য প্রধানতম দায়ী ব্যাক্তি নরেন্দ্র মোদিকে শিগগির বাংলাদেশে আমন্ত্রণ জানাচ্ছে। যা এ মুহূর্তে বাংলাদেশের মুসলমান জনগোষ্ঠীর জন্য চরম উস্কানিমূলক। এই সাম্প্রদায়িক ঘৃণাচারিকে বাংলাদেশে দাওয়াত দিয়ে এনে এই দেশের শান্তিশৃঙ্খলা বিনষ্টের হুমকি তৈরির পাশাপাশি মুসলিম গণহত্যাকারীকে পুরষ্কৃত করার নামান্তর হবে। আমরা পরিষ্কার ভাষায় বলে দিতে চাই, বাংলাদেশের মানুষ খুনি মোদিকে এই দেশে পা রাখতে দিবে না। প্রয়োজনে বিমানবন্দর ঘেরাও দিয়ে হলেও এই খুনিকে রুখে দিবে।

বক্তারা দিল্লিতে মুসলিম গণহত্যার সুযোগ নিয়ে বাংলাদেশে বিদ্যমান সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ও সহনশীল ব্যবস্থাবিরোধী কোন উস্কানী যেন কেউ না দিতে পারে সে বিষয়ে সকলকে সজাগ থাকারও আহ্বান জানান।

বক্তারা বলেন, আমাদের দেশের শান্তি-শৃঙ্খলা ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি অটূট রাখতে এবং ভারত সরকারের মুসলিমবিদ্বেষী অপতৎপরতার প্রতিবাদ জানাতে জালেম নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফর অবশ্যই সরকারকে বাতিল করতে হবে। কারণ, দেশের শান্তিকামী মানুষ গুজরাটের কসাইখ্যাত দিল্লি গণহত্যার খলনায়ক নরেন্দ্রমোদিকে বাংলাদেশের মাটিতে কোনক্রমেই সহ্য করবে না।

এই সংবাদটি 1,022 বার পড়া হয়েছে

WP2FB Auto Publish Powered By : XYZScripts.com