মানবতার কল্যাণে নোয়াপাড়া হেল্প ডেস্ক’র ৭ লক্ষ ৭৭হাজার টাকা প্রদান

প্রকাশিত: ১:৪২ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ২৯, ২০২০

মানবতার কল্যাণে নোয়াপাড়া হেল্প ডেস্ক’র ৭ লক্ষ ৭৭হাজার টাকা প্রদান

সিলেট রিপোর্টঃ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বসবাসরত জগন্নাথপুর উপজেলার ঐতিহ্যবাহী সৈয়দপুর নোয়াপাড়ার যুবসমাজের উদ্যোগে মানবতার কল্যাণে ব্যতিক্রমধর্মী উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। প্রবাসীরা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বৈশ্বিক এই নাজুক পরিস্থিতিতে ফান্ডরাইজিং-এর উদ্দ্যোগ গ্রহণ করে আশাতীত সাড়া পাওয়া গেছে।
প্রায় দেড় মাস হল ইংল্যান্ড, আমেরিকা ইতালী,স্পেন, কুয়েত, লকডাউনের কবলে পড়ে হোম কোয়ারেন্টাইনে থেকেও মাতৃভূমিকে প্রবাসীরা ভুলে যাননি।
জানাগেছে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার ১১ জন প্রবাসী রেমিট্যান্স যোদ্ধা যারা সৈয়দপুর নোয়াপাড়ার লন্ডন, আমেরিকা, ইতালি, স্পেন, সৌদি আরব, কুয়েত, কাতারে অবস্থানরত।
সেই মহতপ্রাণ১১জন উদ্যোক্তা হলেন সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, সৈয়দ মহনুর হোসেন,সৈয়দ নুর আহমদ,সৈয়দ বুরহানি মিয়া, সৈয়দ আব্দুল মজিদ ,সৈয়দ কবির উদ্দীন,সৈয়দ রায়হান হোসেন (তামিম) , সৈয়দ দিলদার হোসেন(জনি), সাদি আহমদ ,আমি সৈয়দ হাফিজ উদ্দীন, মো সাহেল খান।
এব্যাপারে সৈয়দ হাফিজ উদ্দিন সিলেট রিপোর্টকে জানান, Nowapra Help Desk( প্রবাসি যুবসমাজ) এর পক্ষ থেকে ৭ লক্ষ ৭৭ হাজার টাকা সৈয়দপুর নোয়াপাড়ার ১৩৮ ফ্যামিলিকে ২৭ এপ্রিল রামাযান গিফট প্রধান করা হয়।
আমরা একে অপরের সাথে ম্যাসেন্জার ভিডিও কনফারেন্সিং এ আমাদের ইচ্ছের কথা প্রকাশ করি এবং আমরা সবাই সম্মিলিতভাবে আমাদের নোয়াপাড়াকে কেন্দ্রকরে আমাদের পাড়ার ১১৬টি এবং বিদেশী(ময়মনসিংহ) ২২টি টি পরিবারকে এই দুঃসময়ে এবং পবিত্র রমযানুল মোবারকের উছিলায় ৫,০০,০০০/= (পাঁচ লক্ষ) টাকার নগদ উপহার প্যাকেজ দেওয়ার পরিকল্পনা করি।
মানবতার কল্যাণকামী ১১প্রবাসী জানান, আমরা ভবিষ্যতে ও মানবতার কল্যাণে কাজ করতে চাই। তাদের মতে-
“একতাই শক্তি,একতাই বল” এটা আমরা আবারো প্রমান করেছি। কবির ভাষায়-
দশে মিলে করি কাজ হারিজিতি নাহিলাজ।
উদ্যোগ নেয়ার মাত্র তিন দিনের মাথায় আশাতীত সফলতা পেয়েছি। আমাদের পাড়ার সুহৃদয়বান ব্যক্তিবর্গের সহযোগীতায় এপর্যন্ত ৭,৭৭,০০০/= (সাত লক্ষ সাতত্তর হাজার) টাকা আমাদের কাছে এসে জমা হয়েছে।
👉আমরা এ থেকে প্রতিটি পরিবারকে নগদ ৬৫০০/= (ছয় হাজার পাচশত)করে ১১৬টি পরিবার এবং ১০০০/=(একহাজার)২১টি বিদেশী(ময়মনসিংহ) পরিবার এবং ২০০০/=(দুই হাজার) ১টি পরিবার কে নগদ (Covid 19)রমযানুল মোবারাক উপহার/গিফট প্যাকেজ প্রদান করি।
গ্রুপের উদ্যোক্তাদের মধ্যে অন্যতম সৈয়দ হাফিজ উদ্দীন আরো জানান,আমরা অত্যান্ত শ্রদ্ধার সাথে ধন্যবাদ জানাচ্ছি শ্রদ্ধেয় সকল মুরুব্বী ও যুবসমাজ কে। আমাদের সকলের এই মহত উদ্যোগকে সফল করতে যারা শ্রম,সময়,অর্থ দিয়ে সাহায্য করেছেন নোয়াপাড়ার মুরুব্বী, যুবসমাজ যে উদার মনের অধিকারী ইহাই তার জলন্ত প্রমান। ইনশাআল্লাহ আগামীতে ও আপনারা মুরুব্বি ও আমরা প্রবাসি যুবসমাজ যেকোন দুর্যোগে,যে কোন প্রয়োজনে একে অপরের পাশে কাঁধে কাঁধ মিলেয়ে হাতে হাত রেখে কাজ করবো।
.তিনি বলেন, আমরা ১১জনের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জনাই প্রত্যেক দেশ/ টাউনে-আমাদের ফানরাইজিং এ টাকা কালেকশনে যারা সহযোগীতা করেছেন তারা হলেন-সৈয়দ মাজু মিয়া, সৈয়দ খানুর মিয়া, সৈয়দ নাজিম উদ্দীন,সৈয়দ রফিক মিয়া,ওলি আহমদ রুনু, সৈয়দ শানুর মিয়া,সৈয়দ রনি হোসেন প্রমুখ।

“সকলের তরে সকলে আমরা, প্রত্যেকে মোরা পরের তরে ”।
প্রবাস থেকে তত্ত্বাবদানে “নোয়াপাড়া হেল্প ডেস্ক” স্বেচ্ছা সেবক দল বাংলাদেশে যাদের কে দায়িত্ব দেওয়া হয়- সৈয়দ মঈনুল ইসলাম, সৈয়দ নাজির আহমদ, মোঃ জামিল খান,হাফিজ নাদি,সৈয়দ মিজান উদ্দীন,সৈয়দ রুবেল আহমদ,সৈয়দ ফাহিম আহমদ, তালিকা ভুক্ত ১৩৮ পরিবারের কাছে তা যথাসময়ে পৌছে দেন।
.

এই সংবাদটি 87 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

[latest_post][single_page_category_post]

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com