কাসেমীর স্বপ্নের বাস্তবায়ন করাই হবে সঠিক উত্তরসূরির পরিচয় … আল্লামা উবায়দুল্লাহ ফারুক

প্রকাশিত: ১১:১০ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৭, ২০২১

কাসেমীর স্বপ্নের বাস্তবায়ন করাই হবে সঠিক উত্তরসূরির পরিচয়   … আল্লামা উবায়দুল্লাহ ফারুক

সিলেটি রিপার্টা:
জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ সিলেট জেলা ও মহানগর শাখার যৌথ উদ্যোগে (৭ জানুয়ারী) বৃহস্পতিবার রাহবারে মিল্লাত আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী (রাহ.) এর জীবন ও কর্ম শীর্ষক এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় জমিয়তের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাওলানা শায়খ জিয়া উদ্দীন।

প্রধান আলোচকের বক্তব্য রাখেন জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ’র কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি, জামিয়া মাদানিয়া বারিধারার শায়খুল হাদীস, খলীফায়ে ইমামবাড়ী আল্লামা উবায়দুল্লাহ ফারুক।

আল্লামা উবায়দুল্লাহ ফারুক বলেছেন, আল্লামা নূর হোসাইন ক্বাসেমী (রাহ.)এর অন্যতম একটি ফিকির ছিলো দেশে আহলুস সুন্নাত ওয়াল জামাতের পতাকাবাহী, আকাবিরের আমানত জমিয়তে উলামায়ে ইসলামকে শক্তিশালী করা । তিনি (আল্লামা কাসেমী রাহ.) অনুভব করেছিলেন যে, রাজনীতির ময়দানে কোনো শক্তিশালী ইসলামী দল থাকলে দেশের মসজিদ-মাদ্রাসা, ইসলামী কৃষ্টি-কালচার সবকিছুই যথাযথভাবে সংরক্ষিত থাকবে। আর যদি রাজনীতির ময়দানে কোনো শক্তিশালী ইসলামী দল না থাকে, তাহলে কোনো ধর্মীয় বিধি-বিধান বা ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান নিরাপদ থাকবে না। ক্বাসেমী (রাহ.)এর আকাঙ্খা ছিলো দেশের ৬৪টি জেলাতেই যেনো পুরোদমে জমিয়তের কার্যক্রম পরিচালিত হয়। প্রতিটি জেলাতেই যেনো নির্বাচিত জনপ্রতিনিধির ব্যবস্থা হয়। আল্লামা উবায়দুল্লাহ ফারুক আরো বলেন, জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত করার জন্য বেশি-বেশি ভোটার প্রয়োজন। আর ভোটারের জন্য বেশি-বেশি সদস্য প্রয়োজন। আমরা অনেকেই আছি যারা জমিয়তকে ভালোবাসি; কিন্তু জমিয়তী নই। জমিয়তের ব্যাপারে আমাদের কোনো চিন্তা-ভাবনা নেই। অথচ আমাদের উচিত ছিলো জমিয়তকে ভালোবাসার পাশাপাশি প্রকৃত জমিয়তী হওয়া। অর্থাৎ সবসময় জমিয়তের সাংগঠনিক শক্তি বৃদ্ধির চিন্তা-ভাবনা করা। আমরা যদি সত্যিকার অর্থেই ক্বাসেমী রাহ.-এর অনুসারী এবং ভক্ত হই, তাহলে তাঁর আদর্শ ও স্বপ্নের বাস্তবায়ন ঘটাতে হবে। তাঁর রেখে যাওয়া কর্মসূচি আমাদের বাস্তবে রূপদান করতে হবে।


জেলা জমিয়তের সভাপতি মাওলানা মুশাহিদ দয়ামিরীর সভাপতিত্বে এবং মহানগর জমিয়তের সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা সৈয়দ সালিম কাসেমী ও সাবেক ছাত্রনেতা মাওলানা নজরুল ইসলামের যৌথ পরিচালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- দলের ঢাকা মহানগর সহ সভাপতি ও জামিয়া মাদানিয়া বারিধারার শিক্ষাসচিব মুফতি মকবুল হোসাইন কাসেমী, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের নায়েবে আমীর মাওলানা রেজাউল করীম জালালী, খেলাফত মজলিসের নায়েবে আমীর হাফেজ মাওলানা মজদুদ্দীন আহমদ, ছাহেবদায়ে আল্লামা কাসেমী (রাহ.) মুফতি জাবের কাসেমী।

আরো বক্তব্য রাখেন- মহানগর জমিয়তের সভাপতি মাওলানা খলীলুর রহমান, জেলা জমিয়তের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আতাউর রহমান কোম্পানীগঞ্জী, জমিয়তের কেন্দ্রীয় সাহিত্য সম্পাদক মাওলানা ফয়েজুল হাসান খাদিমানী, জামেয়া মাদানিয়া কাজির বাজারের মুহাদ্দিস মাওলানা সিদ্দিক আহমদ চিশতী, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস সিলেট মহানগর সভাপতি মাওলানা গাজী রহমতুল্লাহ, সিলেট মহানগর খেলাফত মজলিসের সহসভাপতি মাওলানা তাজুল ইসলাম হাসান, আল্লামা নূর হোসাইন কাসিমী (রাহ.) এর খলীফা মুফতি জামাল উদ্দিন, প্রমুখ।

এই সংবাদটি 463 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

[latest_post][single_page_category_post]

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com