সোমবার, ২৫ ডিসে ২০১৭ ১০:১২ ঘণ্টা

বইমেলার আয়োজন : রবের পড়ার নির্দেশ তামিল করা

Share Button

বইমেলার আয়োজন : রবের পড়ার নির্দেশ তামিল করা

লাবীব আব্দুল্লাহ ● ঐতিহ্যবাহী ময়মনসিংহ বড় মসজিদ চত্বরে শিকড় সাহিত্য মাহফিল ও আবাবীল আয়োজন করেছিলো ইসলামী পুস্তকক্যালিগ্রাফি প্রদর্শনী৷ তখন ২০০৭ সাল৷ আয়োজন ছিলো সপ্তাহব্যাপী৷ পরে আরও দুই বছর ইসলামী বইমেলা৷ ২০১৭ সালে মাকতাবাতুল আযহারের আয়োজনেকিতাবমেলা৷ আয়োজন সহযোগী শিকড় সাহিত্যমাহফিল৷ মিডিয়া পার্টানার রকমারি, অনুসন্ধান, ইত্তেফাক মিডিয়া৷ অনন্য এই আয়োজন ইসলামী দাওয়াহর অংশ৷ চেতনা বিকাশে ফলপ্রসু আয়োজন বইমেলা৷ একুশ শতকে তথ্যপ্রযুক্তির যুগে মানুষকে পাঠমুখী করতে, আলোকিত ও আলোড়িত করতে বইমেলার বিকল্প নেই৷ বিকল্প নেই পড়ার৷ পাঠ ও পড়া জাতিকে সসভ্য করে, সংস্কৃতিবান করে৷ অভিজাত প্রকাশনী মাকতাবাতুল আযহার, লেখকদের সংগঠন শিকড় সাহিত্য মাহফিলের চারদিন ব্যাপী এই আয়োজনে ব্যাপক পাঠক বই দেখার এবং পছন্দের বই কেনার সুযোগ পেয়েছেন৷ বিশেষ কমিশনে বই কেনার এই সুযোগের সঠিক ব্যবহার করেছেন শিল্প সাহিত্যের শহর ময়মনসিংহের পাঠপ্রেমী জনতা৷ সর্বস্তরে জনতা৷ গঠনমূলক এই আয়োজন সমৃদ্ধ করেছে কিতাবমেলা ক্রোড়পত্র “শিকড়” এবং প্রতিদিনের ছোট প্রকাশনা “পড়ুয়া”৷ প্রতিদিন লেখক পাঠক সমাবেশে ছিলো নবীন প্রবীন লেখকের মনখোলে কথা বলার সুযোগ৷ স্বপ্নের বিনিময়৷ নবরবি প্রতিদিন পরিবেশন করেছে ইসলামী সংস্কৃতি৷

নব রবি শিল্পী গোষ্ঠীর মাধ্যমে ইসলামী সংস্কৃতির অায়োজন ভিন্ন অামেজ তৈরি করেছে। পাঠক হাজার হাজার টাকার বই কিনছে।লেখকের অটোগ্রাফ নিচ্ছে। প্রতিদিন শুনতে পাচ্ছে লেখকদের কথা।

রকমারি, অনুসন্ধান , ইত্তেফাক মিডিয়াসহ যারা কিতাবমেলা প্রচারে ভূমিকা রেখেছেন, আল্লাহ তাঁদের উত্তম বিনিময় দান করুক।

“শিকড়” “পড়ুয়া” এর নেপথ্যে যারা সহযোগিতা করেছেন. আগামী দিনে লেখক, সাংবাদিক হয়ে তারা সত্যের কন্ঠস্বরের ভূমিকা রাখবে এই দুআ।
মনন চর্চ এবং সুসাহিত্য ছড়িয়ে পড়ুক দেশজুড়ে।

ইসলামী চেতনার অালোয় অালোকিত হোক প্রতিটি ঘর।বই এর সুঘ্রাণে সুগন্ধময় হোক পাঠের অাসর। বইয়ের ভুবনে অামাদের বিচরণ হোক প্রতিদিন।


মূলত উন্নত জাতি গঠনে ইসলামি বই এবং সুপাঠের বিকল্প নেই।আমরা পথ চলা হোক সেই উন্নতির পথে৷ একুশ শতক হোক আমাদের। পাঠকের।আমরা পড়ার জাতি।আমরা পড়া নিয়ে গর্বিত


মূলত উন্নত জাতি গঠনে ইসলামি বই এবং সুপাঠের বিকল্প নেই।আমরা পথ চলা হোক সেই উন্নতির পথে৷ একুশ শতক হোক আমাদের। পাঠকের।আমরা পড়ার জাতি।আমরা পড়া নিয়ে গর্বিত।

অামাদের চেতনা ইকরা। আমাদের সাধনা পড়া৷ পড় তোমার রবের নামে এই নির্দেশ আল্লাহর৷ কিতাবেলার আয়োজন আল্লাহর এই পড়ার নির্দেশকে বাস্তবায়ণের করার পদক্ষেপ৷

এই সংবাদটি 1,009 বার পড়া হয়েছে