রবিবার, ০৪ ফেব্রু ২০১৮ ০৮:০২ ঘণ্টা

৮ ফেব্রুয়ারি কর্মসূচি নেই, দেব না: কাদের

Share Button

৮ ফেব্রুয়ারি কর্মসূচি নেই, দেব না: কাদের

ডেস্ক রিপোর্ট:
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ৮ ফেব্রুয়ারি রায়কে কেন্দ্র করে দলের সভানেত্রী শেখ হাসিনা কোনো কর্মসূচি রাখতে বলেননি। যদি বিএনপি বিশৃঙ্খলা করে, তাহলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ব্যবস্থা নেবে। তিনি বলেন, ‘ওই দিন আমাদের (আওয়ামী লীগ) কোনো কর্মসূচি নেই, দেব না।’

আজ রোববার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এক যুব সমাবেশের প্রধান অতিথির বক্তব্যে ওবায়দুল কাদের এ মন্তব্য করেন। ‘বিএনপির সন্ত্রাস, নৈরাজ্য ও জঙ্গিবাদী রাজনীতির প্রতিবাদে’ বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ এ সমাবেশের আয়োজন করে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমাদের পার্টির সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের কোনো কর্মসূচি ৮ তারিখ রাখতে বলেননি। আমাদের কোনো কর্মসূচি নেই ওই দিন, দেব না।’ তিনি বলেন, ‘শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমাদের মাঠ গরম করার দরকার নেই। পরিস্থিতি বুঝে ঠান্ডা মাথায় পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে হবে।’

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলার রায় ৮ ফেব্রুয়ারি। এ রায়কে উদ্দেশ্য করে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন।

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ৮ তারিখের রায়কে কেন্দ্র করে বিভিন্নভাবে উত্তেজনা ছড়ানো হচ্ছে। আপনাদের পরিষ্কারভাবে বলতে চাই, ‘আমরা কারও সঙ্গে পাল্টাপাল্টিতে যাব না। তবে রায়কে কেন্দ্র করে কেউ যদি পরিস্থিতি অশান্ত করার চেষ্টা করে, তাহলে নৈরাজ্যের বিরুদ্ধে আবার সতর্ক পাহারায় থাকব।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, জনগণের জানমালের নিরাপত্তা রক্ষার দায়িত্বে আইন প্রয়োগকারী সংস্থা আছে। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে কখন কী করতে হবে, সেটা তারা দেখবে।

৮ তারিখের রায়কে কেন্দ্র করে বিএনপির কোনো ধরনের উসকানিতে পা না দেওয়ার জন্য নেতা-কর্মীদের নির্দেশনা দেন ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘আমাদের কোনো অসুবিধা নেই। ভরা কলসি নড়ার দরকার নেই। শেখ হাসিনার উন্নয়ন অর্জনের শান্ত পরিবেশকে অহেতুক কেন আমরা অশান্ত করব? আমাদের মধ্যে কোনো হতাশা নেই। বিএনপিকে নিয়ে আমাদের কোনো অস্থিরতা নেই।’

এ সময় নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপিকে নিয়ে বিচলিত হচ্ছেন কেন? জনগণের ওপর শেখ হাসিনার আস্থা আছে। খালেদা জিয়ার লক্ষ্য যেনতেনভাবে ক্ষমতা দখল করা। তিনি বলেন, ‘বিএনপির উসকানির ফাঁদে পা দেবেন না। আমরা শান্তি চাই। বিএনপি উন্মাদ হলে আমরা কেন হব? মাথা গরম করে কিছু করা যাবে না। যা যা প্রয়োজন মাথা ঠান্ডা রেখে করতে হবে।’

ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, উসকানি দেব না, তবে কেউ যদি উসকানি দেয়, তখন প্রয়োজন হলে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে মোকাবিলা করা হবে।

সমাবেশে বিএনপি নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকন বলেন, ‘এই শহরের নির্বাচিত মেয়র হিসেবে আমি বলতে চাই, ৮ তারিখকে কেন্দ্র করে হঠাৎ করে আক্রমণ করে দেবেন, এটা সহ্য করা হবে না।’ তিনি বলেন, ‘বিএনপিকে সাবধান করে দিচ্ছি, আমরা যেমনভাবে ঢাকা দক্ষিণের প্রত্যেকটি আওয়ামী লীগের নেতার বাসা চিনি, তেমনিভাবে কোনো বাসায় বিএনপি–জামায়াতের নেতা-কর্মীরা থাকে, তা জানি। আক্রমণ করবেন না। আক্রমণ করলে, সেটা সহ্য করা হবে না।’

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাটের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য দেন যুবলীগ চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক হারুন-অর রশিদ প্রমুখ।

এই সংবাদটি 1,016 বার পড়া হয়েছে