শনিবার, ২৪ আগ ২০১৯ ০৫:০৮ ঘণ্টা

দুই কাতার প্রবাসীর প্রেম ও বিয়ে নিয়ে চাঞ্চল্য!

Share Button

দুই কাতার প্রবাসীর প্রেম ও বিয়ে নিয়ে চাঞ্চল্য!

মারুফ রানা কাতার থেকেঃ

জীবন ও জীবিকার তাগিদে কাতার পাড়ি জমিয়ে দু’জনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। প্রেমকে সার্থক করতে দু’জনই দেশে ফিরে আসে; কিন্তু দেশে ফিরে বেঁকে বসে প্রেমিক। দাবি আদায়ে প্রেমিকের বাড়িতে অনশন করে প্রেমিকা। এক পর্যায়ে নানা নাটকীয়তার পর সম্পন্ন হয় বিয়ে।
জানা যায়, প্রথমাবস্থায় বিয়ের কথা হলেও দেশে ফিরে প্রেমিক বিয়ে করতে রাজী না হওয়ায় প্রেমিকা অনশন করেই বিয়েতে বাধ্য করে তাকে। ঘটনাটি ঘটেছে রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের বেরুলী গ্রামে। শুক্রবার রাতে এই জুটির বিয়ে সম্পন্ন।
এলাকাবাসী জানিয়েছে, কালুখালী উপজেলার দক্ষিণ বোয়ালিয়া গ্রামের সামছুল আলম মন্ডলের মেয়ে কাতার প্রবাসী তাসলিমা পারভিনের(২৯) সাথে কাতারে অবস্থানকালীন প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে বালিয়াকান্দি উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের বেরুলী গ্রামের সমশের মোল্যার ছেলে কাতার প্রবাসী নান্নু মোল্যার (৩৫) সাথে।
দু’জনের মাঝে মন দেওয়া-নেওয়ার এক পর্যায়ে দুজনেই দেশে আসে। তাসলিমা বিয়ের খরচ বাবদ নগদ ৪০ হাজার টাকা প্রেমিক নান্নুকে দিলেও নান্নু দেশে এসে তাসলিমার টাকা ফেরত দিয়ে দেয়। সেই সাথে তাকে বিয়ে করতে পারবে না বলে সাফ জানিয়ে দেয়।
এরপর প্রবাসী তাসলিমা শুক্রবার ১২ টার দিকে প্রেমিক নান্নু মোল্যার বাড়িতে এসে বিয়ের দাবিতে অনশন করে। এ ঘটনায় নবাবপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ আবুল হাসান আলীসহ এলাকার বিভিন্ন লোকজন তাসলিমার পবিবারকে সংবাদ দিলে তারা ওই বাড়িতে আসে। অবশেষে রাতেই ১ লাখ ১০ হাজার টাকা দেনমোহরে দু’জনের বিয়ে রেজিস্ট্রি করা হয়। আগামী ৬ সেপ্টেম্বর বিয়ের আনুষ্ঠানিকতার দিন ধার্য করে মেয়েকে নিয়ে যায় তার পরিবার। এ ঘটনাটি এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে বলে জানাগেছে।

এই সংবাদটি 1,232 বার পড়া হয়েছে

WP2FB Auto Publish Powered By : XYZScripts.com