সিলেটের সাত উপজেলা আ.লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি

প্রকাশিত: ৭:১৬ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২১, ২০১৯

সিলেট রিপোর্ট :
সিলেট জেলার সাত উপজেলা আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন দেয়া হয়েছে। বুধবার বিকেল ৫টায় জেলা পরিষদ হলরুমে সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় এ কমিটিগুলোর অনুমোদন দেয়া হয়।

এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন জেলা আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক সায়ফুল আলম রুহেল।

পূর্ণাঙ্গ কমিটির অনুমোদনপ্রাপ্ত উপজেলাগুলো হলো- ওসমানীনগর, বালাগঞ্জ, ফেঞ্চুগঞ্জ, জকিগঞ্জ, কানাইঘাট, গোয়াইনঘাট এবং কোম্পানিগঞ্জ।

উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ তাদের প্রস্তাবিত পূর্ণাঙ্গ কমিটির তালিকা জেলার কাছে পাঠানোর পরিপ্রেক্ষিতে জেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরী কমিটির সভায় যাচাই-বাছাই শেষে এসব উপজেলা কমিটির অনুমোদন দেয়া হয়। বিভিন্ন আনুষ্ঠানিকতা শেষে পূর্ণাঙ্গ কমিটির তালিকা শিগগিরই উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের হাতে তুলে দেয়া হবে।

জানা গেছে, গত ২ নভেম্বর বালাগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের অনুষ্ঠিত সম্মেলনে ফের সভাপতি পদে মোস্তাকুর রহমান মফুর ও সাধারণ সম্পাদক পদে আনহার মিয়া বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন।

১০ নভেম্বর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে মুক্তিযোদ্ধা আলী আমজাদ সভাপতি ও আফতাব আলী কালা মিয়া সাধারণ সম্পাদক পুনরায় নির্বাচিত হন।

গত ১১ নভেম্বর কানাইঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে সভাপতি পদে লুৎফুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে অধ্যক্ষ সিরাজুল ইসলাম নির্বাচিত হন।

এর আগে ২০১৫ সালে ওসমানীনগর উপজেলার সম্মেলনে সভাপতি আতাউর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন আফজালুর রহমান চৌধুরী নাজলু।

২০১৫ সালের ৬ মার্চ ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে শওকত আলীকে সভাপতি ও আব্দুল বাছিত টুটুলকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়। একই বছর সম্মেলনের মাধ্যমে গোয়াইনঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হন মো. ইব্রাহিম ও সাধারণ সম্পাদক হন গোলাম কিবরিয়া হেলাল। একই বছর জকিগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে লোকমান উদ্দিন চৌধুরীকে সভাপতি ও মুক্তিযোদ্ধা মুত্তাকিম হায়দারকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়। অর্থাৎ ৪ বছর পর বুধবার (২০ নভেম্বর) চার উপজেলার পূর্ণাঙ্গ কমিটির অনুমোদন দিল জেলা আওয়ামী লীগ।

জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অ্যাডভোকেট লুৎফুর রহমানের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরীর পরিচালনায় কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় বক্তব্য দেন কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, জেলার সহ-সভাপতি ও প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ, মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী এমপি, আশফাক আহমদ, মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমেদ, অ্যাডভোকেট শাহ ফরিদ আহমদ, যুগ্ম সম্পাদক অ্যাডভোকেট নিজাম উদ্দিন, অধ্যক্ষ সুজাত আলী রফিক, অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন খান, হুমায়ুন ইসলাম কামাল, অ্যাডভোকেট শাহ মশাহিদ আলী।

উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মদ আলী দুলাল, অ্যাডভোকেট খোকন কুমার দত্ত, সায়ফুল আলম রুহেল, হাজী রইছ আলী, অ্যাডভোকেট মাহফুজুর রহমান মাহফুজ, হাজি ফারুক আহমদ, নাজনীন হোসেন, সাদ উদ্দিন আহমদ, অ্যাডভোকেট রনজিত সরকার, কবির উদ্দিন আহমদ, ইশতিয়াক আহমদ চৌধুরী, এমদাদ উদ্দিন মানিক, জগলু চৌধুরী, মুস্তাক আহমদ পলাশ, লোকমান উদ্দিন চৌধুরী, নুরুল আমিন, অধ্যক্ষ শামসুল ইসলাম, মোহাম্মদ ইব্রাহিম, আব্দুল হাসিব মনিয়া, মুক্তিযোদ্ধা মফিজুর রহমান বাদশাহ, লুৎফুর রহমান, অ্যাডভোকেট বদরুল ইসলাম জাহাঙ্গীর, এ আর সেলিম, সৈয়দ মিসবাহ উদ্দিন, হাজি মইনুল ইসলাম, শহিদুর রহমান শাহীন, আসমা কামরান, সামসুন্নাহার মিনু, অ্যাডভোকেট আজমল আলী প্রমুখ।

এদিকে, জেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন উপলক্ষে বিভিন্ন কমিটি গঠন করা হয়েছে। জেলার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অ্যাডভোকেট লুৎফুর রহমানকে আহ্বায়ক ও সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরীকে সদস্য সচিব নির্বাচিত করে সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠন করা হয়। এ কমিটিতে জেলার কার্যকরী কমিটির সব নেতৃবৃন্দ এবং উপজেলা শাখার সভাপতি-সাধারণ সম্পাদককে সদস্য রাখা হয়েছে।

এ ছাড়া সম্মেলন সফলে বিভিন্ন উপ-কমিটি গঠন করেছে জেলা আওয়ামী লীগ। অর্থ, অভ্যর্থনা, আপ্যায়ন, প্রচার, শৃঙ্খলা, দপ্তর-সেল ও মিডিয়া, মঞ্চ ও সাজসজ্জা, সাংস্কৃতিক উপকমিটি এবং প্রকাশনা উপলক্ষে সম্পাদক গঠন করা হয়। পরিষদ আগামী ৫ ডিসেম্বর সিলেট আলিয়া মাদরাসা মাঠে জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।

এই সংবাদটি 13 বার পঠিত হয়েছে

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com