অবিলম্বে পদত্যাগ করে জনগণের মৌলিক অধিকার ফিরিয়ে দিন: বিক্ষোভ সমাবেশে আল্লামা কাসেমী

প্রকাশিত: ২:৫৬ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৩১, ২০১৯

ডেস্ক রিপোর্ট :
জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের মহাসচিব আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী বলেছেন, গত বছরের ২৯ ডিসেম্বর রাতে ভোট চুরি হয়েছে, আর ৩০ ডিসেম্বর দিনে ভোট ডাকাতি হয়েছে। এটা গোপন কিছু নয়, দেশের সর্বস্তরের জনতা এটা জানে। যারা ভোট চুরি ও ডাকাতি করে ক্ষমতায় এসেছে, তারা অবৈধ, তাদের ক্ষমতায় থাকার কোন অধিকার নেই।

তিনি আরো বলেন, আজকে দ্রব্যমূল্যের যে ঊর্ধ্বগতি, জনগণ এক শাসরুদ্ধকর পরিস্থিতিতে আছে।দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি কেন? কারণ, এই সরকার নির্বাচিত সরকার নয় বলে নৈতিকভাবে দুর্বল। যে কারণে দেশের ব্যবসা-বাণিজ্য, ব্যাংক, আইন-শৃঙ্খলা, অন্যায়-অপরাধ ও দেশ পরিচালনার কোন কিছুর উপরই তাদের নিয়ন্ত্রণ নেই। তারা কীভাবে আইন-শৃঙ্খলা, সুবিচার ও সুশাসন প্রতিষ্ঠা করবে? তারা নিজেরাই তো বেআইনী ও অবৈধ।

তিনি বলেন, আমরা স্পষ্টভাষায় বলতে চাই, অবিলম্বে পদত্যাগ করে জনগণের মৌলিক অধিকার ফিরিয়ে দিন। দেশের জনগণকে আর কষ্ট দিবেন না। অন্যথায় এই আন্দোলন থামবে না, বরং অবৈধ সরকারের পতনের লক্ষ্যে এই আন্দোলন দুর্বার গতিতে সারা দেশে ছড়িয়ে পড়বে।

আজ (৩০ ডিসেম্বর) রাজধানী ঢাকার জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেটে জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ’র এক বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী এসব কথা বলেন।

দলের সহসভাপতি মাওলানা আব্দুর রব ইউসুফীর সভাপতিত্বে ও প্রচার সম্পাদক মাওলানা জয়নুল আবেদীনের সঞ্চালনায় সমাবেশে দলীয় নেতৃবৃন্দের মধ্যে আরো বক্তব্য রেখেছেন- সহসভাপতি মাওলানা জুনায়েদ আল-হাবীব, যুগ্মমহাসচিব ও ঢাকা মহানগর সভাপতি মাওলানা মঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দী, মুফতি মনির হোসাইন কাসেমী, সহকারী মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মতিউর রহমান গাজীপুরী, সহকারী সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা নাসির উদ্দীন মুনির, দপ্তর সম্পাদক মাওলানা আব্দুল গাফফার ছয়গরী প্রমুখ।

এই সংবাদটি 0 বার পঠিত হয়েছে

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com