প্রেসিডেন্টকে ধন্যবাদ জানালেন ফখরুল

প্রকাশিত: ১০:৫৩ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৬, ২০১৬

প্রেসিডেন্টকে ধন্যবাদ জানালেন ফখরুল

ডেস্ক রিপোর্ট:  নির্বাচন কমিশন নিয়ে আলোচনা শুরু করবেন জেনে প্রেসিকেন্টকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেছেন, প্রেসিডেন্টের প্রেস সেক্রেটারি আজ মঙ্গলবার দুপুরে বলেছেনÑ তিনি বিদেশ থেকে ফিরে আসার পরেই রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে নির্বাচন কমিশন নিয়ে আলোচনা শুরু করবেন। তাকে ধন্যবাদ। আজ জনগণের যে দাবি, প্রেসিডেন্ট তাকে সম্মান করেছেন। আমরা খুব খুশি হয়েছি। গণতন্ত্র দিবস উপলক্ষে আজ বিকেলে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনী মিলনায়তনে ৯০-এর ডাকসু ও সর্বদলীয় ছাত্র ঐক্য আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এ ধন্যবাদ জানান। পাশাপাশি আশঙ্কা প্রকাশ করে মির্জা আলমগীর বলেন, প্রেসিডেন্ট গতবারও আলাপ করেছিলেন। কিন্তু আলাপের পর আওয়ামী লীগের প্রেসক্রিপশন অনুযায়ী সার্চ কমিটি গঠন করা হয়। তাদের নির্বাচিত নির্বাচন কমিশনারই নিযুক্ত করা হয়। আর ওই কমিশনের অধীন বিগত সব কটি নির্বাচনে আমরা কি ভয়াবহ চিত্র দেখেছি। সবচেয়ে ভয়াবহ ৫ জানুয়ারির নির্বাচন। ওই ইসি যোগ্যতার কারণে সে নির্বাচনে শতকরা পাঁচজন লোকও ভোট দিতে যায়নি। সরকারের উদ্দেশ্যে বিএনপি মহাসচিব বলেন, শুধুমাত্র অতীতচারিতা করে, বিএনপিকে বকাবকি করে, খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে গণতন্ত্রের আকুতিকে স্তব্ধ করা যাবে না। আওয়ামী লীগের সমালোচনা করে মির্জা আলমগীর বলেন, দলটি হচ্ছে গণতন্ত্র বিরোধী দল। মুখে বলবে গণতন্ত্রের কথা, কিন্তু তারা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না। নব্বইয়ে গণতন্ত্র উদ্ধার হয়েছিল, সেটা আওয়ামী লীগ নিয়ে নিয়েছে। গত সাত বছরে গণতন্ত্রের কফিনে শেষ পেরেক মেরে দিয়েছে। প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে মির্জা আলমগীর বলেন, গণতন্ত্রকে আরেকবার ধ্বংস করবেন না। ধিক্কৃতদের খাতায় নাম লেখাবেন না। আমরা তো বেশি কিছু চাই না। একটা নিরপেক্ষ নির্বাচন দিন, যাতে সব দল অংশ নেবে, ভোটারেরা তাঁদের পছন্দসই প্রার্থীকে ভোট দেবে। আমরা তো বলছি না, বিএনপিকে ক্ষমতায় বসাতে হবে। গুম হওয়ার পরিবারের দাবি সম্পর্কে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দেওয়া বক্তব্যের সমালোচনা করে তিনি বলেন, যারা গুম হয়েছে তারা ফিরে আসবে না। আওয়ামী লীগ সরকার জেনে বুঝে তাদের সরিয়ে দিয়েছে। দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বিএনপির মহাসচিব বলেন, নব্য ফ্যাসিস্টদেরকে পরাজিত করতে আমাদের সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও ডাকসুর সাবেক ভিপি আমানউল্লাহ আমানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রিজভী আহমেদ, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির, কেন্দ্রীয় নেতা হাবিবুর রহমান, নাজিমউদ্দিন আলম, মোস্তাফিজুর রহমান, ২০ দলীয় জোটের নেতা সাইফুদ্দিন মনি ও খন্দকার লুৎফুর রহমান বক্তব্য দেন।

এই সংবাদটি 234 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

[latest_post][single_page_category_post]

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com