শফিক চৌধুরীর গাড়িতে হামলার ঘটনায় মামলা, গ্রেফতার

প্রকাশিত: ৩:১৯ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২০, ২০১৭

শফিক চৌধুরীর গাড়িতে হামলার ঘটনায় মামলা, গ্রেফতার

সিলেট রিপোট:  সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সাংসদ শফিকুর রহমান চৌধুরীর গাড়িতে হামলার ঘটনায় মামলায় আরও তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রবিবার দিনগত রাতে নগরীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। ঘটনার সময়কার ভিডিও ফুটেজ দেখে তাদের সংশ্লিষ্টতার প্রমাণ পেয়েছে পুলিশ। এনিয়ে দুই দিনে এ মামলায় ৫ জনকে গ্রেফতার করা হলো।

গ্রেফতারকৃত তিনজন হচ্ছে- শাহপরাণ এলাকার আফতাব উদ্দিনের ছেলে মারুফ আহমদ (২২), মাছিমপুরের মৃত আব্দুল্লাহর ছেলে আহমদ আলী স্বপন ও ছড়ারপারের আব্দুল মালেকের ছেলে শাহজাহান ওরফে সাজু (২২)। এর আগে রবিবার সকালে সাজ্জাদ এবং রাজু নামের দুজনকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ।

নগরীর কোতোয়ালী থানার ওসি সোহেল আহমদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ওসি সোহেল জানান, শফিকুর রহমান চৌধুরীর গাড়িতে হামলার ঘটনায় তাঁর ব্যক্তিগত সহকারী কবিরুল ইসলাম কবির বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা ৪০-৫০ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেছেন। ওই মামলায় দুই দিনে পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এদের মধ্যে তিনজনকে ভিডিও ফুটেজ দেখে চিহ্নিত করা হয়েছে। অন্যদেরও গ্রেফতারে পুলিশ তৎপরতা চালাচ্ছে বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার রাতে পুলিশের হাতে চার লিটার মদসহ আটক দুই শ্রমিককে ছাড়িয়ে নিতে প্রথমে ডিবি পুলিশ কার্যালয়ে হামলা চালায় ট্রাক শ্রমিকরা। পুলিশ আটককৃতদের না ছেড়ে হামলা প্রতিহত করলে ওইদিন মধ্যরাতে দেওয়া হয় ধর্মঘটের ডাক।

পরে শনিবার দিনভর সিলেটজুড়ে তান্ডব চালায় পরিবহন শ্রমিকরা। ট্রাক ও মাইক্রোবাস শ্রমিক সংগঠন ধর্মঘটের ডাক দিলেও তাদের বাধায় কোন ধরনের যানবাহনই চলাচল করতে পারেনি। এমনকি অ্যাম্বুলেন্স চলাচলেও বাধার সৃষ্টি করা হয়। এছাড়া নগরীর বিভিন্ন স্থানে আগুন জ্বালিয়ে, সড়ক অবরোধ করে চরম নৈরাজ্যমূলক পরিস্থিতির সৃষ্টি করে পরিবহন শ্রমিকরা।

ধর্মঘট প্রত্যাহারের পরও পরিবহন শ্রমিক নামধারী সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সাংসদ শফিকুর রহমান চৌধুরীর গাড়ি। এ ঘটনায় শফিক চৌধুরীর ব্যক্তিগত সহকারি কবিরুল ইসলাম কবির বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন।

এই সংবাদটি 7 বার পঠিত হয়েছে

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com