বুধবার, ১০ জানু ২০১৮ ০২:০১ ঘণ্টা

বুধবারী বাজারে জমিয়তের মানব-বন্ধন সম্পন্ন

Share Button

বুধবারী বাজারে জমিয়তের মানব-বন্ধন সম্পন্ন

 

সিলেট রিপোর্ট: সোমবার আসরের পর গোলাপগঞ্জের চন্দরপুর-সুনামপুর ব্রীজের উপর জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বুধবারী বাজার ইউপি শাখার উদ্যোগে কুশিয়ারা নদীর ভয়াল ভাঙন প্রতিরোধে ব্লক স্থাপন ও রাস্তাঘাট সংস্কারের দাবীতে বিশাল মানব-বন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এসময় লোকে লোকারণ্য হয়ে উঠে সেতুর পূর্ব থেকে পশ্চিমপার। স্থানীয় সাধারণ মানুষসহ উক্ত মানব-বন্ধনে অংশগ্রহণ করেন বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ছাত্র ও শিক্ষকবৃন্দ। ছাত্রনেতা কবীর আহমদের কোরআন তিলাওয়াতের মাধ্যমে শুরু হয় মানব-বন্ধন। ছাত্র জমিয়ত বুধবারী বাজার ইউপি শাখার সাধারণ সম্পাদক আতিক মুহম্মদ আবুবকরের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বুধবারী বাজার ইউপি শাখার সিনিয়র সহ-সভাপতি হাফিজ মাওলানা আলী আহমদ।প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ইউরোপ জমিয়তের সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ মাওলানা শামীম আহমদ কয়েস। আরোও যারা বক্তব্য রাখেন- জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাদেপাশা ইউনিয়নের সভাপতি মাওলানা নূর উদ্দীন সাহেব, ঢাকাদক্ষীণ ইউনিয়ন শাখার সহ-সভাপতি মাওলানা হেলাল আহমদ, বুধবারী বাজার ইউপি শাখার সাধারণ সম্পাদক আলহাজ মাওলানা খলিলুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা হাফিজ রশীদুর রহমান, প্রচার সম্পাদক মাওলানা ইমাম উদ্দীন, যুব জমিয়ত সিলেট জেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা ফয়সল আহমদ, জমিয়ত নেতা মুফতী মিজানুর রহমান। ছাত্র জমিয়ত সিলেট সরকারী আলিয়া মাদরাসা শাখার সাধারণ সম্পাদক হাফিজ সাদিক আহমদ, বুধবারী বাজার ইউপি শাখার সভাপতি হাফিজ মাওলানা সিদ্দিক আহমদ, চন্দরপুর মাদরাসা শাখার সভাপতি মাওলানা জসিম আহমদ, সাধারণ সম্পাদক ফাহিম আহমদ, সাংগঠনিক সম্পাদক হাফিজ এখলাসুর রহমানসহ স্থানীয় ও জাতীয় নেতৃবৃন্দ। বক্তারা বলেন- আমাদের বর্তমান সরকার মুখে মুখে শুধু উন্নয়নের জোয়ারে দেশ ভেসে যাচ্ছে বললেও বাস্তবে উল্লেখযোগ্য কোনো উন্নয়ন করতে ব্যর্থ হচ্ছে। তারা বলেন রাস্তাঘাট ও নদী ভাঙনের চিত্র দেখলে মনে হয় এদেশের কোনো অভিভাবক নেই।নদীর ভয়াল ভাঙনে বিলীন হয়ে যাচ্ছে গ্রামের পর গ্রাম। ভিটে-মাটি হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে রাস্তায় দিন কাটচ্ছে অগণন পরিবার।কিন্তু সরকার এদিকে কোনো লক্ষ্য না রেখে বিরুধীদের দমন-পীড়নে ব্যস্ত সময় পার করছে।দেশের কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করে বড় বড় ব্যাংক ব্যালেন্স গড়তে মরিয়া উঠছে সরকার ও তার মন্ত্রী আমলারা। বক্তারা অকপটচিত্তে আরোও বলেন- যদি অতি তাড়াতাড়ি বুধবারী বাজার ইউনিয়নে নদী ভাঙন মোকাবেলায় ব্লক স্থাপন এবং রাস্তা-ঘাট সংস্কার না করা হয় তবে আগামী নির্বাচনে কুশিয়ারা তীরবর্তী মানুষ ভোটের মাধ্যমে তার সমুচিত জবাব দেবে। প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন- ইউনিয়নবাসীর এ গুরুত্বপূর্ণ দাবী আমি সরকারের উচ্চপদস্থ ব্যক্তি পযর্ন্ত পৌঁছাবো। বিশেষ করে শিক্ষামন্ত্রি নুরুল ইসলাম নাহিদ সাহেব বরাবরে বিষয়টি খুব জোরালোভাবে উপস্থাপন করবো এবং খুব শিগগির ব্লক স্থাপন প্রকল্প হাতে নিয়ে সম্পূর্ণ দূর্নীতিমুক্তভাবে তা বাস্তবায়নের ব্যবস্থা করার আহবান করবো। এ ব্যাপারে বুধবারী বাজার ইউপি চেয়ারম্যান মস্তাব উদ্দীন কামাল সাহেবের সাথে যোগাযোগ করা হলে সিলেট রিপোর্টকে তিনি বলেন- জমিয়তের দাবীগুলোর সাথে আমি সম্পূর্ণ একমত।এ দাবীগুলো আমাদের গোটা ইউনিয়নবাসীর। তিনি আরোও জানান অচিরেই সরকারের উচ্চপর্যায়ে যোগাযোগ করে দাবীগুলো বাস্তবায়নের জন্য জোর প্রচেষ্টা চালাবেন। উল্লেখ্য, গতকয়েক বছরে বুধবারী বাজার ইউনিয়নে নদী ভাঙনের কারণে বহু পরিবার ভিটে-মাটি হারিয়ে নিঃস্ব হয়েছে। স্থানীয় নিত্যপ্রয়োজনীয় বাজার- বুধবারী বাজার, চন্দরপুর এর অধিকাংশ এখন নদীর তলায়। তাছাড়া ঝুঁকিপূর্ণ রয়েছে মসজিদ-মাদরাসা, ঈদগাহসহ অনেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান।

এই সংবাদটি 1,030 বার পড়া হয়েছে

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com