নোট ইস্যু: মন্ত্রীকে লক্ষ্য করে জুতা নিক্ষেপ

প্রকাশিত: ৮:২৬ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১, ২০১৭

নোট ইস্যু: মন্ত্রীকে লক্ষ্য করে জুতা নিক্ষেপ

ডেস্ক রিপোর্ট:   ভারতের রাজধানী নয়া দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী ও আম আদমি পার্টির নেতা অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে লক্ষ্য করে জুতা নিক্ষেপ করেছেন এক যুবক। রবিবার হরিয়ানা প্রদেশের রোহতকে এক জনসভায় বক্তৃতাকালে এ ঘটনা ঘটে।

ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, নোট ইস্যুতে কেজরিওয়াল তার সমর্থকদের উদ্দেশ্য ভাষণ দিচ্ছিলেন। এ সময় এক যুবক তাকে উদ্দেশ্য করে জুতা ছুঁড়ে মারে। জুতাটি কেজরিওয়ালের গা ঘেঁষে সভা মঞ্চের কিনারায় গিয়ে পড়ে।

এ ঘটনার জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সমর্থকদের অভিযুক্ত করেন কেজরিওয়াল।

এক টুইট বার্তায় কেজরিওয়াল বলেন, ‘আমি মোদিজীকে কাপুরুষ বলেছি। আজ তার কিছু সমর্থক আমাকে লক্ষ্য করে জুতা ছুঁড়ে মারে। আমরা একই কাজ করতে পারতাম কিন্তু আমাদের মূল্যবোধ এই ধরনের কাজের অনুমতি দেয় না।’

‘নোট বন্ধের সিদ্ধান্তের পেছনে আসল সত্য আমি প্রকাশ করে যাব। সিবিআইয়ের অভিযান সত্ত্বেও সাহারা-বিড়লা গোষ্ঠীর ঘুষ, জুতা হামলা ইত্যাদি।’

দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীকে লক্ষ্য করে জুতা নিক্ষেপ করার ঘটনা এটিই প্রথম নয়। ২০১৬ সালের ১০ এপ্রিল আম আদমি সেনা নামে স্বপ্ল পরিচিত একটি রাজনৈতিক দলের এক কর্মী সংবাদ সম্মেলন চলাকালে কেজরিওয়ালকে লক্ষ্য করে জুতা নিক্ষেপ করে। জুতাটি অবশ্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়।

কালো টাকা বন্ধে ৮ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আচমকা ৫০০ ও ১০০০ রুপির নোট বন্ধের ঘোষণা দেয়। এতে ভারত জুড়ে নোট সংকট দেখা দেয় এবং সাধারণ মানুষের ভোগান্তি চরম আকার ধারণ করে। এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে প্রথম থেকেই বিরোধীতা করে আসছেন কেজরিওয়াল।

শুক্রবার এক বক্তৃতায় কেজরিওয়াল বলেন, ‘বাজারে নতুন নোট সরবরাহ স্বাভাবিক করতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ৫০ দিন সময় চেয়েছিলেন। নির্ধারিত সময় পার হয়ে গেলেও সাধারণ জনগণের ভোগান্তি এতটুকু কমেনি।’

এই সংবাদটি 184 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

[latest_post][single_page_category_post]

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com